বিধায়ক তথা প্রাক্তন মন্ত্রীর বাংলোয় উদ্ধার তাঁর বন্ধু যুবতীর ঝুলন্ত দেহ, রহস্যমৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য

উমঙ্ঘ সিঙ্ঘর, ছবি-টুইটার

৷ সুইসাইড নোট অনুযায়ী, কংগ্রেস নেতার জীবনে জায়গা করে নিতে চেয়েছিলেন ওই মহিলা ৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাঁর স্বপ্ন সফল হয়নি ৷ এই ব্যর্থতা তিনি সহ্য করতে পারেননি ৷ সেই কারণেই জীবন শেষ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ৷

  • Share this:

    ভোপাল :  কংগ্রেস বিধায়ক এবং মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মন্ত্রী উমঙ্গ সিঙ্ঘরের বাংলোয় মহিলার রহস্যমৃত্যু ৷ ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ভোপালে ৷ প্রাথমিক পুলিশি তদন্তে জানা গিয়েছে ৩৮ বছর বয়সি ওই মহিলা আত্মঘাতী হয়েছেন ৷ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে সুইসাইড নোট ৷ পুলিশি সূত্রে জানা গিয়েছে সেখানে সিঙ্ঘরের নাম উল্লেখ করেছেন মৃতা ৷ সুইসাইড নোট অনুযায়ী, কংগ্রেস নেতার জীবনে জায়গা করে নিতে চেয়েছিলেন ওই মহিলা ৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাঁর স্বপ্ন সফল হয়নি ৷ এই ব্যর্থতা তিনি সহ্য করতে পারেননি ৷ সেই কারণেই জীবন শেষ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ৷

    ঘটনার প্রেক্ষিতে রাজনীতিক সিঙ্ঘর জানিয়েছেন, ওই মহিলা তাঁর ভাল বন্ধু ছিলেন ৷ তবে তিনি যে মানসিক চিকিৎসার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিলেন, সে কথা তিনি জানতেন না বলে দাবি কংগ্রেস নেতার ৷

    আদতে অম্বালার বাসিন্দা ওই যুবতী গত প্রায় এক বছর ধরে ভোপালের শাহপুরায় সিঙ্ঘরের বাংলোয় আসা যাওয়া করছেন বলে জানা গিয়েছে ৷ মাসখানেক ধরে তিনি ওখানেই থাকছিলেনও বলে জানিয়েছে পুলিশ ৷

    গত দুদিন ভোপালের বাইরে ছিলেন সিঙ্ঘর ৷ তাঁর বাংলোয় ওই মহিলার ঘরের দরজা দীর্ঘ ক্ষণ বন্ধ থাকায় সন্দেহ হয় পরিচারক ও তাঁর স্ত্রীর ৷ তাঁরা সিঙ্ঘরকে খবর দেন ৷ তিনি এক আত্মীয়কে বাংলোয় পাঠান ৷ পরে ঘরের দরজা ভেঙে যুবতীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয় ৷

    সংবাদমাধ্যমে সিঙ্ঘর জানিয়েছেন, এই ঘটনা তাঁর কাছে হৃদয় বিদারক ৷ তিনি যদি জানতেন, তাঁর বন্ধু  অম্বালা ও ভোপালে মানসিক চিকিৎসার মধ্যে দিয়ে গিয়েছেন, তাহলে তিনিও তাঁর জন্য যথা সময়ে উপযুক্ত চিকিৎসার ব্যবস্থা করাতেন বলে দাবি করেছেন ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: