Home /News /national /
‘আমার আর আমার দুই মেয়ের জামা ছিঁড়ে ফেলল উন্মত্ত জনতা’, দিল্লির হাসপাতালে শুয়ে শিউরে উঠছেন মা

‘আমার আর আমার দুই মেয়ের জামা ছিঁড়ে ফেলল উন্মত্ত জনতা’, দিল্লির হাসপাতালে শুয়ে শিউরে উঠছেন মা

Representative Image (Reuters)

Representative Image (Reuters)

‘আমরা শরীরে ওড়না জড়িয়ে দোতলা থেকে ঝাঁপ দিয়েছিলাম,’ উত্তর পূর্ব দিল্লির আল হিন্দ হাসপাতালে শুয়ে ভয়ানক অভিজ্ঞতার কথা বললেন হিংসা আক্রান্ত দিল্লির এক মহিলা

  • Share this:

    #মুম্বই: ‘আমরা শরীরে ওড়না জড়িয়ে দোতলা থেকে ঝাঁপ দিয়েছিলাম,’ উত্তর পূর্ব দিল্লির আল হিন্দ হাসপাতালে শুয়ে ভয়ানক অভিজ্ঞতার কথা বললেন হিংসা আক্রান্ত দিল্লির এক মহিলা৷ বুধবার রাতের ঘটনা মনে করলে এখনও বারবার শিউরে উঠছেন তিনি৷

    ‘আমি বাড়িতে ছিলাম যখন উন্মত্ত জনতা বাড়ির সামনে এসে হাজির হয়৷ আমি বাঁচতে চেষ্টা করেছিলাম, কিন্তু ওরা আমার মেয়ে আর আমার জামাকাপড় ধরে টানাটানি শুরু করল৷ টেনে ছিঁড়ে ফেলল জামা৷’ বলতে বলে কেঁদে উঠছিলেন মহিলা, কারওয়াল নগরে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা চালান তিনি৷

    তিনি জানান, বিশাল সংখ্যায় মানুষ এসে তাঁদের তাড়া করেছিল৷ কিন্তু একটা সময়ে পিছু করতে করতে হামলাকারীরা হঠাৎ কোথায় অদৃশ্য হয়ে যায়৷ উনি তখন আয়ুব আহমেদের বাড়িতে আমি জায়গা পাই৷

    ‘আমি যখন আয়ুব আহমেদের বাড়ি যখন পৌঁছই, তখন উনি আমাদের খাবার খেতে দেন৷ তারপর আমাদের আহত অবস্থায় নিয়ে আনা হয় এআই হিন্দ হাসপাতালে৷ আমি চাইলেই আক্রমণকারীদের চিহ্নিত করতে পারি৷’

    এমন নানা হামলার খবর নতুন করে এখন আবার উঠে আসছে৷ সলমন খান নামে এক ব্যক্তি অভিযোগ করেছেন, মঙ্গলবার রাতে তাঁকে অ্যাসিড দিয়ে হামলা করা হয়৷ শরীরের ২০ শতাংশ পুড়ে যায় এই হামলায়৷ তাঁকেও হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়৷ সেখানে সলমনের চিকিৎসা চলছে৷ মার খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি আকিল সৈফি নামে গোকুলপুরীর বাসিন্দাও৷ তিনি বলেছেন, ‘মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটা নাগাদ যখন আমি কাজ থেকে ফিরছিলাম৷ তখন হঠাৎ আমাকে থামিয়ে দেয় উন্মত্ত জনতা৷ আমার মোটর সাইকেল আটকে রেখে আমার ওপর হামলা চালান হয়৷’

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published:

    Tags: Al-hind hospital, Delhi Violence

    পরবর্তী খবর