• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • হিন্দু মেয়েকে বিয়ে করতে এসে গণপ্রহারের শিকার মুসলিম যুবক

হিন্দু মেয়েকে বিয়ে করতে এসে গণপ্রহারের শিকার মুসলিম যুবক

A TV grab shows people beating down on the Muslim man at the Ghaziabad marriage registrar office

A TV grab shows people beating down on the Muslim man at the Ghaziabad marriage registrar office

বিয়ে করতে চেয়ে গণপ্রহারের মুখে ৷ ভিন্নধর্মের মেয়েকে বিয়ে করতে চেয়েছিলেন ৷ এটাই ছিল তার অপরাধ ৷ মুসলিম হয়ে হিন্দু মেয়েকে বিয়ে করতে চেয়েছিল সে ৷

  • Share this:

    #গাজিয়াবাদ: বিয়ে করতে চেয়ে গণপ্রহারের মুখে ৷ ভিন্নধর্মের মেয়েকে বিয়ে করতে চেয়েছিলেন ৷ এটাই ছিল তার অপরাধ ৷ মুসলিম হয়ে হিন্দু মেয়েকে বিয়ে করতে চেয়েছিল সে ৷ আর সেই অপরাধের শাস্তি হিসেবে মিলল বেদম প্রহার ৷ গাজিয়াবাদের আদালতের বাইরে সেই অপরাধেই হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের একটি শাখার সদস্যের কাছে বেদম প্রহারের শিকার হলেন তিনি ৷

    সম্প্রতি এমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় ৷ পুলিশ সূত্রে খবর, ওই মুসলিম যুবকের নাম সাহিল ৷ উত্তরপ্রদেশের বিজনোর জেলার বাসিন্দা তিনি ৷ কাজের সূত্রে নয়ডা আসেন তিনি ৷ সেখানেই একটি বেসরকারি সংস্থার উচ্চপদস্থ আধিকারিক সাহিল ৷ সেই সংস্থাতেই প্রীতি সিংয়ের সঙ্গে আলাপ হয় তার ৷ যিনি রাজপুত পরিবারের মেয়ে ছিলেন ৷ এরপর সম্পর্কের গভীরতা ৷ দু’জনেই স্থির করেন বিয়ে করবেন ৷ আর সেই পরিকল্পনা মতনই এগোচ্ছিলেন তারা ৷ কিন্তু ভিন্ন ধর্মের হওয়ার জেরে বিয়ের জন্য তাদের পরিবার পরিজন রাজি হবেন না ৷ সেই কারণেই গাজিয়াবাদের আদালতে গিয়ে তারা বিয়ে করে নেবেন বলে স্থির করেন ৷ নিরাপত্তার কারণে নয়ডা ছেড়ে এসে গাজিয়াবাদে বিয়ে করার পরিকল্পনা করে তারা ৷ আর তাতেই ঘটে বিপত্তি ৷

    সোমবার সন্ধ্যেবেলা বিয়ে উপলক্ষ্যে তারা পৌঁছন গাজিয়াবাদ আদালতে ৷ সেখানেই ম্যারেজ রেজিস্টারের সঙ্গে কথা বলছিলেন তারা ৷ সেই সময়ই ম্যারেজ রেজিস্টারের অফিসে ঢুকে পড়েন হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের শাখার সদস্যরা ৷ এরপর ছেলেটিকে গালিগালাজ শুরু করে তারা ৷ শুরু হয় ধাক্কাধাক্কি ৷ হিন্দু ধর্মের মেয়েকে বিয়ে করার অপরাধে ছেলেটি মারধর শুরু করে তারা ৷ এরপরই ঘটনাস্থলে আসে বিশাল পুলিশবাহিনী ৷ পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে ৷

    অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে স্বত:প্রণোদিত মামলা দায়ের করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুবিশ ৷

    First published: