• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • গাড়ি নেই রাস্তায়, হিন্দুর মরদেহ শ্মশানে নিয়ে চললেন মুসলিম ভাইয়েরা

গাড়ি নেই রাস্তায়, হিন্দুর মরদেহ শ্মশানে নিয়ে চললেন মুসলিম ভাইয়েরা

মুসলিম যুবকরা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘এটা তাঁদের কর্তব্যের মধ্যে পড়ে বলেই তাঁরা মনে করেন

মুসলিম যুবকরা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘এটা তাঁদের কর্তব্যের মধ্যে পড়ে বলেই তাঁরা মনে করেন

মুসলিম যুবকরা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘এটা তাঁদের কর্তব্যের মধ্যে পড়ে বলেই তাঁরা মনে করেন

  • Share this:

    #‌নয়া দিল্লি:‌ এই আমাদের চেনা দেশ। এই আমাদের চেনা ভারতবর্ষ। যেখানে হিন্দু মুসলিম থাকেন পাশাপাশি। আর সেই আশ্চর্য সর্বধর্ম সমন্বয়ের চিত্র দেখতে পাওয়া গেল মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে। রাস্তায় গাড়ি পাননি, তাই মায়ের শেষকৃত্য কীভাবে করবেন বুঝতে পারছিলেন ছেলে। তখনই এগিয়ে এলেন একদল মুসলিম যুবক। তাঁরা কাঁধে তুলে নিলেন খাট। সেই ছবিই ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

    করোনা ভাইরাসের ভয়ে রাস্তায় একটিও গাড়ি ছিল না। কী করবেন তখন বুঝতেই পারছিলেন না মৃতের পরিবারের লোকেরা। দীর্ঘদিন রোগভোগের পর যখন ৬৫ বছর বয়সের ওই মহিলার মৃত্যুর হয়, তখন শেষকৃত্য করার লোক ছিল না। পরিবারের লোকও করোনা আতঙ্কে এড়িয়ে যাচ্ছিলেন। আসেননি কেউ।

    সেই সময়েই করোনা সতর্কতা বজায় রেখে, মাস্ক পরে শেষকৃত্যের আয়োজন করলেন একদল মুসলিম যুবক। নিজেদের কাঁধেই হিন্দু মহিলার মৃতদেহ নিয়ে হেঁটে গেলেন প্রায় ২.‌৫ কিলোমিটার রাস্তা। তারপরেই মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস মুখপাত্র এই বিষয়টি বিস্তারিত সংবাদমাধ্যমের সামনে আনেন।

    মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও কংগ্রেস নেতা কমলনাথ ঘটনাটি সামনে আসার পরেই ধন্যবাদ জানিয়েছেন সবাইকে। তিনি হিন্দিতে একটি ট্যুইট করে লিখেছেন, ‘‌শেষকৃত্যের জন্য সন্তনাকে নিয়ে এক হিন্দু মহিলার দেহ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন মুসলিমরা। এটি সমাজে একটি উদাহরণ। এটি দেশের ভাতৃত্ব ও ঐক্যের বোধকে প্রকাশ করে।’‌ আর ওই মুসলিম যুবকরা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, এটা তাঁদের কর্তব্যের মধ্যে পড়ে বলেই তাঁরা মনে করেন।

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: