সপার বৈঠকে প্রথম থেকেই টানাপোড়েন, অমর সিংকে ‘ভাই’ সম্বোধন মুলায়মের

এদিন বৈঠকে শিবপাল ও অমর সিংহকে নিজের ভাই বলে ব্যাখান দেন মুলায়াম সিং ৷

এদিন বৈঠকে শিবপাল ও অমর সিংহকে নিজের ভাই বলে ব্যাখান দেন মুলায়াম সিং ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #লখনউ:  গৃহযুদ্ধ চলছে উত্তরপ্রদেশের যাদব পরিবারে। পার্টির অন্তর্কলহে উত্তাল উত্তরপ্রদেশের লখনউ। দলে ভেঙে যেতে পারে বলে জল্পনা তুঙ্গে ৷ সমাজবাদী পার্টির সুপ্রিমো সোমবার দলের ভাঙন রুখতে এদিন জরুরি বৈঠক ডাকেন ৷ এদিন বৈঠকে শিবপাল ও অমর সিংহকে নিজের ভাই বলে ব্যাখান দেন মুলায়াম সিং ৷  পাশাপাশি ছেলেকে কড়া বার্তা দিয়ে তিনি বলেন, ‘আমিই পার্টিকে বড় করেছি ৷ দলের জন্য অনেক লড়াই করেছি ৷ আমার সঙ্গে যুবসমাজ নেই ৷ এমনটা মনে করার কোনও কারণ নেই ৷ আমি এখনও ফুরিয়ে যাইনি ৷’

    পার্টির মধ্যে চলা এই গৃহযুদ্ধ চলাকালীন এই কয়েকদিন কোনও মন্তব্য করেননি তিনি ৷ এদিন এই বিষয়ে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘‘আমার পরিবারের কাছে একটা কঠিন সময় ৷ পরিবারের মধ্যে যেভাবে ভাঙন ধরছে ৷ তাতে আমি খুবই মর্মাহত ৷ আমি সপা’র যুবদের অনেক জায়গা দিয়েছি ৷ নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্ব বন্ধ করতে হবে ৷ দলের দুর্বলতা দূর করতে হবে ৷’

    অমর সিংকে ‘ভাই’ সম্বোধন করে মুলায়ম বলেন, ‘অমর সিং যা করেছেন তা ক্ষমার যোগ্য ৷ অমর হল আমার ভাই ৷ অমর ও শিবপালকে আমি ছাড়তে পারব না ৷ ’

    এদিন অমর সিং সম্বন্ধে তিনি আরও বলেন যদি এমর সিং না থাকতেন তাহলে তিনি জেলে থাকতেন ৷ পাশাপাশি শিবপাল সম্বন্ধে তিনি বলেন, ‘সমাজবাদী পার্টিতে শিবপালের অবদান অতুলনীয় ৷ আমি কোনওদিন শিবপালের অবদান ভুলব না ৷’

    রবিবার সকালেই মুলায়ম-অমর ঘনিষ্ঠ শিবপাল যাদব সহ চার মন্ত্রীকে বরখাস্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব। ঘণ্টা খানেকের মধ্যেই ছেলের সবচেয়ে কাছের সহযোগী রামগোপাল যাদবকে দল থেকে বহিষ্কার করেন সপা সুপ্রিমো মুলায়ম সিং যাদব। বাবা-ছেলের দ্বন্দ্বে ভোটের আগে আরও বিপাকে সপা।

    বাবা মুলায়ম সিং যাদব শিবপালের পক্ষে রয়েছেন জেনেও অখিলেশের এই পদক্ষেপে চাঞ্চল্য ছড়ায় রাজনৈতিক মহলে। তবে একঘণ্টার মধ্যেই পালটা পদক্ষেপ করে মুলায়ম বুঝিয়ে দেন, দলের রাশ তাঁরই হাতে।

    বাবা-ছেলের গৃহযুদ্ধের মাঝেই সবচেয়ে আলোচিত চরিত্র অমর সিং। অখিলেশের আপত্তি উড়িয়েই অমরকে দলে ফেরান মুলায়ম। তারপর থেকেই যাদব পরিবারের কোন্দল চরমে। আগামী বছরের বিধানসভা নির্বাচনের আগে যা ভাঙন ধরাতে পারে সমাজবাদী পার্টিতে।

    First published: