Mukul Roy: দিল্লির বাসভবন ছাড়তে হবে, নির্দেশ মুকুল রায়কে! বাড়ি রাখতে শেষ চেষ্টায় তৃণমূল

দিল্লির এই বাড়িতেই থাকেন মুকুল রায়৷

তৃণমূল সাংসদ হিসেবে দিল্লিতে ১৮১ সাউথ অ্যাভিনিউয়ের এই বাসভবনটি পেয়েছিলেন মুকুল রায় (Mukul Roy)৷ কিন্তু ২০১৭ সালে বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার আগে সাংসদ পদে ইস্তফা দেন তিনি৷

  • Share this:

#দিল্লি: দিল্লির বাসভবন ছেড়ে দিতে হবে মুকুল রায়কে৷ তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পরই রাজ্যসভার প্রাক্তন সাংসদ মুকুল রায়ের এই বাসভবন থাকবে কি না তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছিল৷ শেষ পর্যন্ত সেই সম্ভাবনাই সত্যি হল৷ জানা গিয়েছে, রাজ্যসভার সচিবালয় থেকে মুকুলকে এই বাস ভবন খালি করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ তবে মুকুলের এই বাসভবনটি যেহেতু বিজেপি-র রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্তের নামে রয়েছে, তাই চিঠি গিয়েছে তাঁর কাছেই৷

এতদিন ওই বাসভবনে অতিথি হিসেবে থাকছিলেন মুকুল রায়৷ কিন্তু রাজ্যসভার সচিবালয় থেকে চিঠি পাওয়ার পর স্বপনবাবু মুকুল রায়কে বাসভবন ছেড়ে দিতে বলেছেন বলে খবর৷

তৃণমূল সাংসদ হিসেবে দিল্লিতে ১৮১ সাউথ অ্যাভিনিউয়ের এই বাসভবনটি পেয়েছিলেন মুকুল রায়৷ কিন্তু ২০১৭ সালে বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার আগে সাংসদ পদে ইস্তফা দেন তিনি৷ কিন্তু বিজেপি নেতৃত্বের সৌজন্যেই সাংসদ পদ ছাড়লেও বাসভবন ছাড়তে হয়নি মুকুলকে৷ কারণ তখন তিনি ছিলেন গেরুয়া শিবিরের গুরুত্বপূর্ণ নেতা৷ স্বপন দাশগুপ্ত যেহেতু সাংসদ হিসেবে ওই বাসভবনটিতে থাকতেন না, তাই অতিথি হিসেবে সেই বাসভবন ব্যবহার করছিলেন মুকুল রায়৷ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাসভবনের ঠিক পাশের বাড়িটিতেই থাকতেন মুকুল রায়৷

কিন্তু গত ১১ জুন মুকুল রায় তৃণমূলে ফিরে আসার পরই সমীকরণ বদলে যায়৷ মুকুল রায় যাতে ওই বাড়িতে থাকতে না পারেন, তার জন্য সক্রিয় হয় বিজেপি শিবির৷ ইতিমধ্যেই মুকুল রায়ের দিল্লির বাড়ির বাইরে থেকে বিজেপি-র ব্যানার সরে গিয়ে তৃণমূলের ব্যানার লাগানো হয়েছে৷ তার মধ্যেই বাড়ি ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ পৌঁছল তাঁর কাছে৷ যদিও তৃণমূল সূত্রে খবর, এই বাসভবনটি দলের সাংসদ দোলা সেনের নামে বরাদ্দ করার জন্য রাজসভার চেয়ারম্যানের কাছে আবেদন করা হয়েছে৷ সেই আবেদন মঞ্জুর হয়ে গেলে অবশ্য স্বস্তি পাবেন মুকুল৷ তা না হলে দিল্লিতে নতুন ঠিকানা খুঁজতে হবে তাঁকে৷ কারণ রাজ্যের বিধায়ক হলেও দিল্লির রাজনীতিতেও তৃণমূলের হয়েও তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published: