• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • একটুর জন্য প্রাণে বাঁচলো আরোহী! চলন্ত ট্রেনের ধাক্কায় মুহূর্তেই চূর্ণবিচূর্ণ মোটর সাইকেল, দেখুন ভিডিও

একটুর জন্য প্রাণে বাঁচলো আরোহী! চলন্ত ট্রেনের ধাক্কায় মুহূর্তেই চূর্ণবিচূর্ণ মোটর সাইকেল, দেখুন ভিডিও

দেখুন সেই ভাইরাল ছবি ৷

দেখুন সেই ভাইরাল ছবি ৷

ট্রেন লাইন পারাপার হওয়ার সময় একজন মোটরসাইকেল আরোহীর বাইকটি ট্রেনের ধাক্কায় দুমড়ে মুচড়ে যায়। এক্টুর জন্য প্রাণে বেঁচে যায় চালক, সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল ভাইরাল ভিডিও।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বার বার সতর্ক করা স্বত্বেও ট্রেন লাইনের উপর দিয়ে চলাচল এখনও এই দেশে দেখা যায়। তার ফলে অনেক সময় বহু লোককে দুর্ঘটনার শিকার হতে হয়েছে। এমনই একটি ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়, যা দেখে অনেকেই আঁতকে উঠেছেন। অন্ধ্রপ্রদেশের একজন মোটরসাইকেল আরোহী চলন্ত ট্রেনের তলায় যেতে যেতে বেঁচে গিয়েছে। কিন্তু তার মোটরসাইকেলের অত ভাল সৌভাগ্য ছিলনা। ভিডিওতে দেখা যায় ট্রেনের ধাক্কায় তার মোটরসাইকেল এক্কেবারে চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে যায়।

    ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় রেলপথ পারাপারের সুরক্ষা গেট বন্ধ করে দেওয়ার পরেও ওই ব্যাক্তি জোর করে রেললাইন ট্র্যাকের উপর দিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিল, কিন্তু তার বাইক ট্রেন লাইনে ট্রাকের কাছে আটকে যায়। আরোহীর চোখের পলক ফেলতে না ফেলতেই মুহূর্তে ওই দিক থেকে ধেয়ে আসে চলন্ত ট্রেন। তৎক্ষণাৎ সে বাইক ছেড়ে নেমে পড়তে বাধ্য হয়। ট্রেন লাইনে আটকে থাকা ওই বাইক চলন্ত ট্রেনের ধাক্কায় একেবারে দুমড়ে মুচড়ে যায়, চারিদিকে ধুলোয় মিশে যায় বাইকের বিভিন্ন অংশ। ভয়ানক এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর সকলেই তাজ্জব হয়েছেন আরোহীর কান্ড দেখে। আপনিও দেখুন সেই ভিডিওটি---

    সংবাদ সংস্থার কয়েকটি প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে যে ঘটনাটি অন্ধ্রপ্রদেশের রাজমন্দ্রিতে হয়েছিল। বিভিন্ন সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম জুড়ে ফুটেজটি কয়েক হাজার বার দেখা হয়েছে। নেটদুনিয়ায় ওই আরোহীর বিরুদ্ধে সমালোচনা করা হয়েছে। ওই ব্যাক্তির নাম শহীদ আলি, বয়স ২৪। দর্শকদের মূলত ড্রাইভারটির সমালোচনা ছিল, যিনি হিন্দি নিউজ ওয়েবসাইট লাইভ হিন্দুস্তান দ্বারা চব্বিশ বছরের শহীদ আলি হিসাবে চিহ্নিত হয়েছিল। একটি সংবাদ মাধ্যমে জানানো হয়েছে, আলি ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু পরে তাকে গ্রেফতার করে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।
    Published by:Somosree Das
    First published: