• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • উচ্চতায় ঠিক বাবরিরই মতো হবে অযোধ্যার নতুন মসজিদ, ঢেলে সাজানোর দায়িত্ব ইতিবাসবিদ পুষ্পেষ পন্থকে

উচ্চতায় ঠিক বাবরিরই মতো হবে অযোধ্যার নতুন মসজিদ, ঢেলে সাজানোর দায়িত্ব ইতিবাসবিদ পুষ্পেষ পন্থকে

অযোধ্যার ধন্নিপুর অঞ্চলে পাঁচ একর জমির ওপর গড়ে উঠবে মসজিদ কম্পলেক্স।

অযোধ্যার ধন্নিপুর অঞ্চলে পাঁচ একর জমির ওপর গড়ে উঠবে মসজিদ কম্পলেক্স।

অযোধ্যার ধন্নিপুর অঞ্চলে পাঁচ একর জমির ওপর গড়ে উঠবে মসজিদ কম্পলেক্স।

  • Share this:

    নয়াদিল্লি: সুপ্রিম কোর্টের রায় অনুযায়ী রামমন্দির স্থাপনের পাশাপাশি অযোধ্যায় নতুন করে মসজিদ গড়ার জন্যও অনুমতি দেওয়া হয়েছে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকে। সেই মসজিদের আকৃতি-উচ্চতা সবই বাবরি মসজিদের সমানই হবে, এমনটাই জানাচ্ছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। ইন্দো-ইসলামিক বোর্ডের তরফে মসজিদকে ঢেলে সাজানোর জন্য প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ তথা জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক পুষ্পেষ পন্থকে নিয়োগ করা হয়েছে।

    কী আদল দিতে চাইছেন তিনি মন্দিরকে? তাঁর কথায় আদলটা বড় কথা নয়। আমরা চাইছে ইসলামে যে শান্তির কথা রয়েছে সেই বার্তা তুলে ধরুক এই মসজিদ। সেই বার্তা মানুষের মনকে শান্ত করুক।

    অযোধ্যার ধন্নিপুর অঞ্চলে পাঁচ একর জমির ওপর গড়ে উঠবে মসজিদ কম্পলেক্স। সেখানে মসজিদের পাশআপাশি থাকবে লাইব্রেরি ও হাসপাতাল। পুষ্পেষ পন্থ জানাচ্ছেন একটি কমিউনিটি কিচেনও তৈরি হবে ওই মসজিদ অঞ্চলে। দরিদ্র মানুষের জন্য অঢেল বিলি হবে পুরি, সবজি।

    হাতে কলমে এই মসজিদের নকশা তৈরির দায়িত্বে রয়েছেন এসএম আখতার৷ তাঁর কথায়, 'আমি গোটা কমপ্লেক্সটারই নকশা তৈরি করব৷ মসজিদ তারই মধ্যে রয়েছে৷ তবে পুরোটাই কমপ্লেক্সের মধ্যে থাকবে কি না, তা এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। আমরা একটি হাসপাতালও গড়তে চাই। আমাদের মূল উদ্দেশ্য হল, সমাজ ও মানুষের জন্য কিছু সেবামূলক কাজ করা৷ আমরা যা কিছু তৈরি করতে পারি৷'

    মসজিদটি গঠিত হবে ১৫ হাজার ফুট জায়গার উপর। প্রসঙ্গত এই আখতার হুসেন লখনউ শহরেরও টাউন প্ল্যানার। এখনও পর্যন্ত শীর্ষ আদালতের নির্দেশ মেনে ধন্নিপুরে উত্তর প্রদেশের সুন্নি সেন্ট্রাল ওয়াকফ বোর্ডকে পাঁচ একর জমি দেওয়া হয়েছে৷ মসজিদের নির্মাণকাজ দেখাশোনার জন্য একটি ১৫ সদস্যের ট্রাস্ট গঠন করা হয়েছে৷

    Published by:Arka Deb
    First published: