বাঁদরকে গলায় দড়ির ফাঁস দিয়ে গাছের ডালে ঝুলিয়ে হত্যা তেলঙ্গানায়

বাঁদরকে গলায় দড়ির ফাঁস দিয়ে গাছের ডালে ঝুলিয়ে হত্যা তেলঙ্গানায়
Representative Image

সাতুপল্লি বন দফতরের রেঞ্জ অফিসার এ ভেঙ্কটেশ্বরলু জানিয়েছেন, তিন জনেই দোষ স্বীকার করেছে, তারাই বাঁদরটিকে গলায় দড়ির ফাঁস দিয়ে গাছে ঝুলিয়ে দিয়েছিল৷ তিনজনকেই বন্যপ্রাণ রক্ষা আইনে গ্রেফতার করা হয়েছে৷

  • Share this:

    #হায়দরাবাদ: কয়েক সপ্তাহ আগে বাজি মাখানো আনারস খাইয়ে কেরলে এক গর্ভবতী হাতিকে নৃশংস ভাবে হত্যার অভিযোগে তোলপাড় হয় দেশ৷ এ বার পশুর উপর ফের নৃশংস অত্যাচার করে হত্যার ঘটনা ঘটল তেলঙ্গানার খাম্মাম জেলায়৷ অন্য বাঁদরদের ভয় পাওয়াতে এক বাঁদরকে গলায় দড়ি দিয়ে গাছের ডালে ঝুলিয়ে হত্যা করা হল৷ তিন ব্যক্তি মিলে এই নির্মম হত্যালীলা চালিয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷

    সাতুপল্লি বন দফতরের রেঞ্জ অফিসার এ ভেঙ্কটেশ্বরলু জানিয়েছেন, তিন জনেই দোষ স্বীকার করেছে, তারাই বাঁদরটিকে গলায় দড়ির ফাঁস দিয়ে গাছে ঝুলিয়ে দিয়েছিল৷ তিনজনকেই বন্যপ্রাণ রক্ষা আইনে গ্রেফতার করা হয়েছে৷

    ঘটনাটি ঘটেছে গত ২৬ জুন ভেমসুর গ্রামে৷ হঠাত্‍ একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে মোবাইলে, একটি বাঁদরের দেহ গলায় দড়ি ফাঁস লাগানো অবস্থায় গাছ থেকে ঝুলছে৷ ভিডিওটি দেখেই তদন্ত শুরু করেন বন দফতরের অফিসাররা৷ তদন্তে জানা গিয়েছে, ওই তিন জনের উদ্দেশ্য ছিল অন্য বাঁদরদের ভয় পাওয়ানো৷ তাই একটি বাঁদরকে গলায় দড়ি দিয়ে হত্যা করে তারা৷


    ভেঙ্কটেশ্বরলু জানাচ্ছেন, সাতুপল্লি ও তার আশপাশের গ্রামগুলিতে দীর্ঘ দিন ধরেই বাঁদরের উপদ্রব৷ বাঁদরের দলের উপদ্রবে ঘুম উড়ে গিয়েছে ওই গ্রামগুলির বাসিন্দাদের৷

    Published by:Arindam Gupta
    First published: