ভারত-চিন সম্পর্কে নতুন অধ্যায়, মোদিকে চিনে আমন্ত্রণ জিনপিংয়ের

ভারত-চিন সম্পর্কে নতুন অধ্যায়, মোদিকে চিনে আমন্ত্রণ জিনপিংয়ের
  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দু’ দেশের মতভেদ বিচক্ষণতার সঙ্গে সমাধানের সংকল্প নিয়েছে ভারত-চিন। মতবিরোধ যেন কোনও ভাবে বিবাদে না গড়ায়। যৌথ বৈঠকের শুরুতেই বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। দু দিনের বৈঠকে কাশ্মীর প্রসঙ্গ ওঠেনি। যৌথ বৈঠক শেষে জানালেন বিদেশসচিব। কাশ্মীর নিয়ে কথা না হওয়াকে কূটনৈতিক জয় হয়েছে বলে মনে করছে ভারত। বিশ্বে শান্তি বজায় রাখতে দু’ দেশ সদর্থক ভূমিকা নেবে। চিনকে বার্তা মোদির।

চেন্নাই কানেক্টের মধ্যে দিয়ে শুরু হল ভারত-চিন সম্পর্কের নতুন অধ্যায়। দু’ দেশের মতবিরোধ বিচক্ষণতার সঙ্গে সমাধান করতে হবে। মতবিরোধ থেকে যেন অশান্তির আবহ তৈরি না হয়... চেন্নাইয়ে যৌথ বৈঠকে বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

ওহানে ঘরোয়া আলোচনার দেড় বছর পর চেন্নাইয়ে ঘরোয়া বৈঠক। এই বৈঠকের মধ্যে দিয়ে দু দেশের পারস্পরিক সহযোগিতা আরও বাড়বে বলে মনে করছেন মোদি।

দু দিনের বৈঠকে ওঠেনি কাশ্মীর প্রসঙ্গ। চিনের রাষ্ট্রপ্রধান কাশ্মীর নিয়ে একটি বাক্য খরচ করেননি। যৌথ বৈঠকের পর জানালেন বিদেশ সচিব। ঘরোয়া বৈঠকে বিশ্ব সন্ত্রাসবাদ নিয়ে আলোচনা করেন দুই রাষ্ট্রপ্রধান।

মোদি-জিনপিঙের বৈঠকের বড় অংশ জুড়ে ছিল দু দেশের শিল্প ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক।

-- ভারত-চিন বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরও মজবুত করতে হবে

-- আইটি, ফার্মাতে ভারতের বিনিয়োগকে স্বাগত জানিয়েছে চিন

-- নির্মাণ শিল্পকে চাঙ্গা করে কর্মসংস্থান বাড়ানো

-- দু’ দেশের সেনার মধ্যে বিশ্বাসের পরিবেশ গড়ে তোলা

-- নিরাপত্তা, প্রতিরক্ষা নিয়ে আলোচনা

পর্যটন, জলবায়ু পরিবর্তন-সহ একাধিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় বৈঠকে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান চিন সফরে থাকাকালীন কাশ্মীর নিয়ে বার বার ভোলবদল করেছে চিন। ইমরান খানও কৌশলে কাশ্মীরের কথা তোলেন। তবে চিনের রাষ্ট্রপ্রধানের কাশ্মীর প্রসঙ্গ না তোলাকে তাদের কূটনৈতিক জয় মনে করছে ভারত।

First published: 05:00:29 PM Oct 13, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर