Home /News /national /
Indian Parliament: মহিলা সুরক্ষা, মূল্যবৃদ্ধি এবং অগ্নিপথ নিয়ে আলোচনায় রাজি মোদি সরকার

Indian Parliament: মহিলা সুরক্ষা, মূল্যবৃদ্ধি এবং অগ্নিপথ নিয়ে আলোচনায় রাজি মোদি সরকার

Indian Parliament: তৃণমূলের অভিযোগ, বাজেট অধিবেশনের ২৭ দিন এবং চলতি বাদল অধিবেশনের ১০ দিন সর্বমোট ৩৭ দিন ধরে মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে আলোচনার দাবি জানালেও তাতে কর্ণপাত করেনি মোদি সরকার।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: মহিলা সুরক্ষা, মূল্যবৃদ্ধি এবং অগ্নিপথ। বাদল অধিবেশনের তৃতীয় সপ্তাহে এই ত্রিফলায় বিদ্ধ হতে চলেছে মোদি সরকার। তিনটি ইস্যুতেই মোদি সরকারকে চেপে ধরার কৌশল প্রস্তুত করে ফেলেছে সম্মিলিত বিরোধী শিবির। সোমবার বাদল অধিবেশনের তৃতীয় সপ্তাহের প্রথম দিনে লোকসভায় মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে আলোচনায় সম্মত হয়েছে সরকার। ফলে সেদিন মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে বিরোধী শিবিরের আক্রমণের মুখে পড়তে হবে ট্রেজারি বেঞ্চকে।

আরও পড়ুন:  ৩ হাজার ৪শো ১৯ কোটি টাকা বিদ্যুতের বিল! হাতে পেয়েই অসুস্থ ব্যক্তি! কী করে এল কোটি টাকার বিল?

তৃণমূলের অভিযোগ, বাজেট অধিবেশনের ২৭ দিন এবং চলতি বাদল অধিবেশনের ১০ দিন সর্বমোট ৩৭ দিন ধরে মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে আলোচনার দাবি জানালেও তাতে কর্ণপাত করেনি মোদি সরকার। তার মধ্যে বাদল অধিবেশনের প্রথম দিন থেকে মূল্যবৃদ্ধি, জিএসটি নিয়ে আলোচনার দাবিতে লাগাতার বিক্ষোভে পুরো জলে গিয়েছে দুটি সপ্তাহ। সাসপেন্ড হয়েছেন ২৭ জন সাংসদ। তাঁদের ধর্নায় সামনে অবশেষে সুর নরম করতে বাধ্য হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। সোমবার লোকসভায় এবং মঙ্গলবার রাজ্যসভায় মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে আলোচনা হবে। রাজ্যসভায় মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে তৃণমূলের তরফে আলোচনায় অংশ নেবেন রাজ্যসভার দলনেতা ডেরেক ও ব্রায়েন। আজ সোমবার পর্যন্ত সংসদের উভয় কক্ষ মুলতুবি হয়ে যায়। তারপরেই ধর্না প্রত্যাহার করে বিরোধীরা।

আরও পড়ুন:  সানির কোলে অনুরাগ! নীল সুন্দরীর জীবন বদলে দিলেন কাশ্যপ! তাও মাত্র একটা ফোনে! জানুন

গান্ধিমূর্তিতে মাল্যদান এবং শ্রদ্ধা জানিয়ে শেষ হয় ৫০ ঘণ্টার রিলে ধর্না। বিজয় চকে সাংবাদিক সম্মেলন করেন সমাজবাদী পার্টির রামগোপাল যাদব এবং ডিএমকের টি শিবা। রামগোপাল যাদব বলেন, দেশের শিশুদের মুখ থেকে দুধ ছিনিয়ে নিয়েছে মোদি সরকার। দোলা সেন বলেন, " মোদি সরকার মিথ্যাবাদী। সেই জন্য তাদের কথার ওপর জবাব দেওয়া যায় না বা বিশ্বাস করা যায় না।" কোন দিন, কোন সময়ে কোন দলের কোন সাংসদ থাকবেন, তা স্থির করতে একটি রোস্টার করা হয়। সেই অনুযায়ী সাংসদরা হাজিরা দেন ধর্নায়। কোনও দল প্রাতঃরাশ, কোনও দল মধ্যাহ্নভোজ আবার কোনও দল নৈশভোজের ব্যবস্থা করে। যেমন প্রথম দিন মধ্যাহ্নভোজের ব্যবস্থা করে তৃণমূল। সোমবার কংগ্রেসের চারজন সাংসদকে লোকসভা থেকে সাসপেন্ড করা হয়। তারপর গতকাল তৃণমূলের সাতজন সহ মোট ১৯ জনকে এবং আজ আম আদমি পার্টির সঞ্জয় সিংকে সাসপেন্ড করা হয়।

RAJIB CHAKRABORTY

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Parliament

পরবর্তী খবর