জন্মসূত্রেই নাগরিক মোদি, প্রধানমন্ত্রীর নথির প্রয়োজন নেই, RTI আবেদনে জানাল পিএমও

জন্মসূত্রেই নাগরিক মোদি, প্রধানমন্ত্রীর নথির প্রয়োজন নেই, RTI আবেদনে জানাল পিএমও

মোদি জন্মসূত্রে ভারতীয়, তাই নাগরিকত্ব সংক্রান্ত নথির প্রয়োজন এক্ষেত্রে নেই।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি:জন্মসূত্রেই ভারতীয় নাগরিক নরেন্দ্র দামোদরদাস মোদি। প্রধানমন্ত্রী নাগরিকত্ব নথি চেয়ে একটি আবেদন পিএমও’তে জমা পড়ে। এর জবাবে বলা হয়েছে, মোদি জন্মসূত্রে ভারতীয়, তাই নাগরিকত্ব সংক্রান্ত নথির প্রয়োজন এক্ষেত্রে নেই। যদিও পিএমও-র এই জবাব ঘিরে নিয়ে তুমুল আলোড়ন। CAA-NRC নিয়ে চাপানউতোর। তারই মধ্যে আরটিআই আবেদন ঘিরে তুমুল আলোড়ন।

কি নিয়ে আরটিআই আবেদন? কেনই বা এনিয়ে আলোড়ন? আলোড়ন চলছে, কারণ প্রধানমন্ত্রীর নাগরিকত্বের প্রমাণ নিয়ে তথ্য চেয়েছেন এক ব্যক্তি। গত ১৭ই জানুয়ারি তথ্যের অধিকার আইনে ওই ব্যক্তি আবেদনে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নাগরিকত্ব সংক্রান্ত নথি প্রকাশ্যে আনা হোক ৷ জবাবে প্রধানমন্ত্রীর দফতরের সচিব প্রবীণ কুমারের সই করা চিঠিতে জানানো হয়,নাগরিকত্ব আইনের ৩ নম্বর ধারায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভারতীয় নাগরিক। তাই এক্ষেত্রে তাঁর নাগরিকত্ব নথির প্রসঙ্গ আসছে না।

পিএমও-র এই জবাব ঘিরেই আলোড়ন। তথ্যকর্মীদের বড় অংশের অভিযোগ, পিএমও-র এই উত্তর গ্রহণযোগ্য নয়। তাঁরা মনে করাচ্ছেন, তথ্যের অধিকার আইনের ৪(১) ধারায় আবেদনের নির্দিষ্ট জবাব দেওয়া বাধ্যতামূলক ৷ নরেন্দ্র মোদির নাগরিকত্বের কি নথি রয়েছে, তা জানানো উচিৎ ছিল ৷ তাদের আরও বক্তব্য, নাগরিকত্ব আইনের ৩ নম্বর ধারাতেও জন্মসূত্রে নাগরিকত্ব পাওয়া সংবিধানিক অধিকার ঠিকই। তবে দেশের অন্য নাগরিকদের ক্ষেত্রেও তা প্রযোজ্য তো? এই আইনে বলা হয়েছে?

১৯৫০ সালের পরে ও ১৯৮৬ সালের নাগরিকত্ব আইন চালু হওয়ার মধ্যে ভারতে জন্মানো যে কেউই ভারতের নাগরিক ৷

অসমে নথি না থাকার জন্য বহু মানুষের ঠাঁই হয়েছে ডিটেনশন সেন্টারে। তারই মধ্যে দেশজুড়ে এনআরসি নিয়ে জল্পনা। এই পরিস্থিতিতে খোদ প্রধানমন্ত্রীর নাগরিকত্ব নথি প্রকাশ না করা ঘটনা ঘটল। স্বাভাবিক কারণেই যা ঘিরে আলোড়ন।

First published: March 3, 2020, 7:43 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर