প্রতিদিন বাড়ির পুরুষেরা নেশা করে ফিরছেন, মহিলার এক জোট হয়ে যা করলেন...

প্রতিদিন বাড়ির পুরুষেরা নেশা করে ফিরছেন, মহিলার এক জোট হয়ে যা করলেন...
Representative Image
  • Share this:

#পশ্চিম মেদিনীপুর: সমাজকে সুস্থ রাখতে হাতে হাত সুভদ্রা, আজমিরার। একসাথে হাতে হাত মিলিয়ে সমাজকে পরিচ্ছন্ন করর আন্দোলনে নেমেছে । এলাকায়  কয়েক দিন ধরে বেড়ে চলেছে মদ জুয়ার দৌরাত্ম্য, নেশাগ্রস্ত হচ্ছে এলাকার যুবক থেকে প্রাপ্ত বয়স্করা৷ নেশায় আক্রান্ত হয়ে বাড়ির গচ্ছিত টাকা জোরপূর্বক এনে নেশার কাজে লাগিয়ে দিচ্ছে তারা। এরফলে সংসার চালাতে হিমশিম খেয়ে উঠছে দরিদ্র পরিবারের মহিলারা, সংসারে নেমে আসছে আর্থিক অনটন। তাই প্রশাসনের উপর আস্থা রেখেই, নিজেরাই হাতে হাত রেখে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রেখে আন্দোলন নামল গ্রামের প্রমিলা বাহিনী।

আরও পড়ুনশশুরকে শ্বাসরোধ করে টাঙিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল পুত্রবধূর বিরুদ্ধে

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা চন্দ্রকোনা ২ নম্বর ব্লকের তিন নাম্বার বসনছোড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের পিয়ারডাঙা ও প্রসাদপুর এলাকার মধ্যবয়স্ক থেকে যুবক আসক্ত হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের নেশায়। শুধু তাই নয় এলাকায় সন্ধ্যে হলে যেখানে সেখানে বসে সাট্টা জুয়ার ও বাইরে থেকে চোলাই মদ এনে বিক্রি, নেশা আসক্ত হয়ে অনেক ছেলেরা মৃত্যু হয়েছে। তাই নিজেদের সমাজকে সুন্দর করে তুলতে সংসারে সুখ ফিরিয়ে আনতে  আন্দোলন নাম আয়েশা বিবি, শর্মিলা পান, সুভদ্রারা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে বেশ কয়েকদিন ধরে সন্ধ্যে নামলে এলাকার ক্লাব ও  চায়ের ঠেকে হাজির হয়ে যেত এই মহিলারা, এবং সেখানে সাট্টা জুয়ার আড্ডা দেখলে প্রতিবাদ করত তারা এমনকি হাতে লাঠি-সোটা নিয়ে তেড়ে গিয়েছে, চোলাই মদ এনে বিক্রি করার বেশ কয়েকটি মোদের ঠেক ও ভেঙেছে তারা,এমনকি চলাই বিক্রেতাকে গণধোলাই দিয়েও সচেতন করেছে তারা। এর ফলে কয়েক দিনে এলাকা  অনেকটাই ফিরেছে শান্তি এমনি বিশিষ্ট জনের মত। এলাকালে একে বারে সাফ করতে আরো বৃহৎ আন্দোলন গড়ার ডাক দিয়ে এগিয়ে চলার বৃতি হলো তারা।

সোমবার  এলাকার মহিলারা ঢোল দিয়ে  দিয়ে এলাকার মানুষকে সচেতন করে মহিলারা একত্রিত হয়ে খোলা মাঠে জনসভা করল। এমনকি এই জনসভায় ডাক পড়ল এলাকার বিশিষ্ট জনের। সেই জনসভাতে তারা ব্রতী হলেন এলাকার সাট্টা, জুয়া, মদ, আমরা তুলবো। এমনকি প্রশাসনও কেউ লিখিত আকারে দাবি জানিয়েছে তারা, যাতে প্রশাসন এই মহিলাদের পাশে দাঁড়ায়। মহিলাদের কার্যকলাপকে সমর্থন করেছে এলাকার বিশিষ্টজনেরা, এলাকাবাসী মুক্তার খান, সদানন্দ সামন্ত বলেন, যা আমরা পারিনি, তা করে দেখিয়েছে এলাকায় কয়েক শ' প্রমীলা বাহিনী। ওদের  মা দুর্গার মতো অসুর বিনাসীনি মূর্তি দেখে নিজেদের সচেতন করেছে এলাকার নেশাগ্রস্ত পুরুষেরা।

First published: 11:49:18 PM Nov 11, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर