Home /News /national /
উটের দুধ ছাড়া বাঁচবে না অটিজম আক্রান্ত শিশু, রাজস্থান থেকে জোগাড় করে দিলেন IPS আফিসার!

উটের দুধ ছাড়া বাঁচবে না অটিজম আক্রান্ত শিশু, রাজস্থান থেকে জোগাড় করে দিলেন IPS আফিসার!

সাড়ে তিন বছরের ছোট্ট শিশু, অটিজমে আক্রান্ত । প্রচুর খাবারে তার অ্যালার্জি রয়েছে । একমাত্র উটের দুধ খেতে পারে সে । কিন্তু লকডাউনের মধ্যে সেই উটের দুধ জোগাড় করতে হিমশিম খাচ্ছিলেন এক মা ।

  • Share this:

    #ভুবনেশ্বর: মনুষ্যত্ব আজও বেঁচে আছে । রিয়েল লাইফ হিরোরা আমাদের আশেপাশেই আছেন, কখনও সখনও দেখাও মেলে তাঁদের । সিনেমার পর্দা থেকে হঠাৎই বাস্তবের মাটিতে পদার্পণ করেন তাঁরা । তখন মনে হয় সত্যিই পৃথিবীটা কত সুন্দর । কত দয়ালু মানুষরা আজও আর্তের প্রয়োজনে তাঁদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন ।

    মুম্বইয়ের সাড়ে তিন বছরের ছোট্ট শিশু, অটিজমে আক্রান্ত । প্রচুর খাবারে তার অ্যালার্জি রয়েছে । একমাত্র উটের দুধ খেতে পারে সে । কিন্তু লকডাউনের মধ্যে সেই উটের দুধ জোগাড় করতে হিমশিম খাচ্ছিলেন এক মা । তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় কাতর আবেজদন জানিয়ে একটি পোস্ট করেছিলেন তিনি । লিখেছেন, কোনও সহৃদয় ব্যক্তি যদি তাঁর অসুস্থ ছেলের জন্য উটের দুধ জোগাড় করে দিতে পারেন, তা হলে চিরকৃতজ্ঞ থাকবেন তিনি । রাজস্তানের সাদরিতে উটের দুধ ও পাউডার পাওয়া যায়, সে কথাও জানিয়েছিলেন নেহা কুমারী নামের ওই মহিলা ।

    গত ৪ এপ্রিল এমন একটি ট্যুইট করেছিলেন নেহা । নেটদুনিয়ায় এক অসহায় মায়ের এই বার্তা অনেকের চোখে পড়েছিল । সেই ট্যুইট দেখেই সাহায্যের হাত বাড়িযে দিলেন আইপিএস অফিসার অরুণ বোথরা । ওড়িশার সেন্ট্রাল সাপ্লাই ইউনিটের অধিকর্তা তিনি । মুম্বইয়ের নেহার এই আবেদন দেখে কোমর বেঁধে কাজে নেমে পড়েন তিনি । ৬ দিনের মধ্যেই নেহার কাছে পৌঁছে যায় ২০ লিটার উটের দুধ ও ২০ কেজি গুঁড়ো দুধ ।

    কী করে এমন অসাধ্য সাধন করলেন অরুণ? নেহার বার্তাটা নিজের একাধিক হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে শেয়ার করেন তিনি । নেহার ফোন নম্বর জোগাড় করে তাঁর সঙ্গে কথা বলেন । নেহার ট্যুইটটি রিট্যুইট করেন । সেই ট্যুইট দেখে এগিয়ে আসেন নর্থ-ওয়েস্ট রেলওয়ের এক কর্মকর্তা তরুণ জৈন । জরুরি ভিত্তিতে ৪০০ গ্রাম দুধ মুম্বইযে পাঠান তিনি । কিন্তু এতে সমস্যার সমাধান হবে না । আরও দুধ প্রয়োজন ওই শিশুটির । তাই নিজে যোগাযোগ করেন রেলওয়ের শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গে । জানতে পারেন, ৯ এপ্রিল লুধিয়ানা থেকে একটি মালগাড়ি মুম্বই যাবে । সেই ট্রেনেই দুধ পাঠাতে হবে । এরপর রাজস্থানের সাদরিতে হনুমন্ত সিং নামে এক সরবরাহকারীর সঙ্গে যোগাযোগ করেন তরুণ । তাঁর সাহায্যেই মোট ৪০ লিটার দুধ মালগাড়িতে মুম্বইয়ে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন তিনি ।

    Published by:Simli Raha
    First published:

    Tags: Autistic Child, Camel Milk, Rajasthan

    পরবর্তী খবর