Corona: পরিস্থিতি ভয়াবহ! মেডিকেল ও নার্সিং পড়ুয়াদের কোভিড ডিউটিতে নামানোর ভাবনা কেন্দ্রের

Corona: পরিস্থিতি ভয়াবহ! মেডিকেল ও নার্সিং পড়ুয়াদের কোভিড ডিউটিতে নামানোর ভাবনা কেন্দ্রের

ডিউটিতে থাকা মেডিকেল স্টাফদের আর্থিক প্যাকেজ বাড়ানোর ব্যাপারেও আলোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

ডিউটিতে থাকা মেডিকেল স্টাফদের আর্থিক প্যাকেজ বাড়ানোর ব্যাপারেও আলোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি:

    দেশে করোনা পরিস্থিতি মারাত্মক আকার নিয়েছে। এরই মধ্যে রবিবার উচ্চস্তরের মিটিং সারলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলাদা আলাদা ব্যাপারে কথা বললেন তিনি। মিটিং চলাকালীন দেশে অক্সিজেন ও ওষুধ সরবরাহ কেমন, তার একটি রিভিউ করলেন প্রধানমন্ত্রী। করোনা সংক্রমণ রোধে আগামিদিনে কী কী পদক্ষেপ নেওয়া হবে, তা নিয়েও বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি। জানা গিয়েছে, করোনা মোকাবিলায় কোভিড যোদ্ধাদের দল আরো বড় করতে চাইছেন প্রধানমন্ত্রী। রবিবারের বৈঠকে মেডিকেল ও নার্সিং পড়ুয়া অথবা পাসআউটদের ডিউটিতে নামানোর চিন্তা-ভাবনা শুরু করেছে কেন্দ্র। তবে এই ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের তরফে সোমবার জানানো হতে পারে।

    মিটিং-এ কথা হয়েছে, এমবিবিএস পাস আউট স্টুডেন্টদেরও কোভিড ডিউটিতে নামানোর ব্যাপারে ভাবনা চিন্তা করছে সরকার। এমবিবিএস ফাইনাল ইয়ার পড়ুয়াদের করোনা রোগীদের সেবায় কাজে লাগানো হতে পারে। ডিউটিতে থাকা মেডিকেল স্টাফদের আর্থিক প্যাকেজ বাড়ানোর ব্যাপারেও আলোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে মন্ত্রীসভার সদস্যদের সঙ্গে মিটিং করেছেন প্রধানমন্ত্রী। সেদিন তিনি মন্ত্রীদের বলেছিলেন, নিজ নিজ ক্ষেত্রে সবার সঙ্গে সম্পর্ক রাখতে। যার যখন যেটা প্রয়োজন তাকে সব রকম সহায়তা করার পরামর্শ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এদিকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে সশস্ত্র সেনাবাহিনীকে ইমারজেন্সি ফাইন্যান্সিয়াল পাওয়ার দেওয়া হয়েছে। যাতে মহামারীর সময় জরুরীকালীন ব্যবস্থা করা যেতে পারে ।

    প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আগে জানিয়েছিলেন, এমন মহামারী শতাব্দীতে একবার আসে। গোটা বিশ্বের সামনে এখন করোনা মহামারীর এই পরিস্থিতি সামলানো একটা বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে ভারতের দুটি ভ্যাকসিনের ওপর মানুষকে আস্থা রাখার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি আগেই জানিয়েছিলেন, আরও বেশ কয়েকটি ভ্যাকসিন বাজারে আসার অপেক্ষায়। এখনো পর্যন্ত ১৫ কোটির বেশি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে।

    Published by:Suman Majumder
    First published: