Crime: ঋণ শোধ করতে ৫ হাজার টাকায় আড়াই বছরের মেয়েকে বিক্রি করল বাবা, তার পর...

ঋণ শোধ করতে ৫ হাজার টাকায় আড়াই বছরের মেয়েকে বিক্রি করল বাবা

ঘটনা প্রকাশ্যে আসে, যখন মেয়েটির ঠাকুরদা রবীন্দ্র বারিক ছেলে রমেশের বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর দায়ের করেন।

  • Share this:

    #ভুবনেশ্বর: ধারে জর্জরিত বাবা নিজের আড়াই বছরের মেয়েকে ঋণ শোধ করার জন্য বিক্রি করে দেয় বলে অভিযোগ। ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে মেয়েকে বিক্রি করা হয় বলে অভিযোগ। এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে ওড়িশার বিনঝড়পুরের সাহাদেবপুর গ্রামে। ঘটনা প্রকাশ্যে আসে, যখন মেয়েটির ঠাকুরদা রবীন্দ্র বারিক ছেলে রমেশের বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর দায়ের করেন। অভিযোগে নাম রয়েছে লিটু জেনা নামে আরেক ব্যক্তিরও। সেই ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে মেয়েটিকে কিনে নিয়েছিল বলে অভিযোগ।

    পুলিশ সূত্রে খবর, মেয়েটির বাবা রমেশ কপমার বারিক লিটু জেনার কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা ধার করেছিল। দীর্ঘদিন থেকেই আর্থিক সংকটে ভুগছিল তার পরিবার। তাই টাকা ফেরানোর জন্য মেয়েকে বিক্রি করে দেওয়ার পরিকল্পনা করে সে। লিটু মাঝে মাঝেই রমেশের বাড়িতে গিয়ে টাকার জন্য চাপ দিত। এর পরই মেয়েকে বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয় রমেশ।

    সেখানকার অ্যাডিশনাল ডিজি যশবন্ত জেঠওয়া জানিয়েছেন, 'এটা সত্যি যে রমেশ লিটুর কাছ থেকে ৩ বা ৫ হাজার টাকা ধার করেছিল। এর পর রমেশের স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে গেলে শ্বশুরকে সে জানিয়েছিল একা তার পক্ষে মেয়ের দায়িত্ব নেওয়া সম্ভব নয়। লিটুর একটি পরিবার রয়েছে, তাই তার কাছেই মেয়েকে দিয়ে দেয় সে। তবে টাকা ফেরানোর জন্যই কিনা তা এখনও তদন্তসাপেক্ষ।'

    আপাতত শিশুটিকে উদ্ধার করে চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটির কাছে রাখা হয়েছে। সমস্ত ঘটনা খতিয়ে দেখে তবেই পদক্ষেপ করতে চায় পুলিশ। শিশুটির ঠাকুরদা আরও জানিয়েছেন, অভিযোগ দায়েরের পর থেকে বার বার থানায় গিয়ে শিশুর অবস্থার খোঁজ নিয়েছেন তিনি। পুলিশের কাছে তিনি জানতে পেরেছেন, খুব শীঘ্রই শিশুটিকে তাঁর কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হবে।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: