চাকরির লোভে ঘুমন্ত বাবার গলায় গামছা পেঁচিয়ে খুন করল ছেলে, সাহায্য করল মা এবং ভাই

চাকরির লোভে ঘুমন্ত বাবার গলায় গামছা পেঁচিয়ে খুন করল ছেলে, সাহায্য করল মা এবং ভাই

representative image

বাবা মারা গেলে সহানুভূতির ভিত্তিতে মিলবে চাকরি, এই লোভে বাবাকে খুন করল খোদ ছেলে! সাহায্য করল মা ও ভাই!

  • Share this:

    #তেলেঙ্গানা: বাবা মারা গেলে সহানুভূতির ভিত্তিতে  মিলবে চাকরি, এই লোভে বাবাকে খুন করল খোদ ছেলে! সাহায্য করল মা ও ভাই!

    ঘটনাটি ঘটেছে তেলঙ্গানার পেড্ডাপল্লি জেলার কোথুর গ্রামে। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মৃত ৫৫ বছরের ব্যক্তি পিএসইউ-তে কর্মরত ছিলেন। সেই চাকরিটা হাতাতেই মা ও ছোট ভাইয়ের মদতে বাবাকে ঘুমের মধ্যে গলায় গামছা পেঁচিয়ে খুন করে পলিটেকনিকে ডিপ্লোমা করা বড় ছেলে। তারপর তিনজন মিলে ঘটনাটি এমন করে সাজায়, যাতে মনে হয় হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু হয়েছে বাবার। দুই ছেলেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ, কিন্তু মা পলাতক। দুটো মোবাইল ফোন ও খুনে ব্যবহৃত গামছা সিল করা হয়েছে।

    পেড্ডাপল্লি জেলাতে রাজ্য সরকার চালিত সিঙ্গেরেনি কোলিয়ারিজ লিমিটেড-এর পাম্প অপারেটর ছিলেন মৃত ব্যক্তি। বড় ছেলে, ছোট ছেলে ও স্ত্রী মিলে ফন্দি আঁটে তাঁকে খুন করার! তাদের পরিকল্পনা ছিল, বাবার মৃত্যু হলে বড় ছেলে সহানুভূতির কারণে চাকরিটা পাবে। খুনের পর দিন পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের জানানো হয়, হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু হয়েছে ব্যাক্তির। শুরু হয়ে যায়  শেষকৃত্তের প্রস্তুতিও ।

    কিন্তু তাঁদের কথায় কোথাও একটা ফাঁক রয়ে যায়, পরিবারের সবাই বিশ্বাস করেন না!  তাঁরাই পুলিশে খবর দেন। এরপর দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়। শুরু হয় পুলিশি তদন্ত। জানা যায়, বড় ছেলে প্রথমে তাঁর পরিকল্পনা জানায় ছোট ভাই ও মাকে! দুজনেই রাজি হলে খুন করা হয় বাবাকে! তিনজনের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ধারা ৩০২ (হত্যা), ১২০-বি (ষড়যন্ত্র), ২০১ (মিথ্যা তথ্য দেওয়া) এবং ৩৪ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    লেটেস্ট খবর