স্ত্রীর সঙ্গে নিত্য অশান্তি, মোটা মাইনের চাকরি ছেডে় স্বামী হয়ে গেলেন ক্যাব চালক!

প্রতীকী ছবি৷

দিল্লি পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চের তরফে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবারই ফিরে এসেছেন ৩৫ বছর বয়সি ওই ব্যক্তি৷

  • Share this:

    #দিল্লি: স্ত্রীর সঙ্গে নিত্য অশান্তি৷ বাড়িতে থাকাটাই যেন দুঃসহ হয়ে উঠেছিল৷ সমস্যার সমাধানে অভিনব পথ বেছে নিলেন দিল্লির বাসিন্দা এক ব্যক্তি৷ বহুজাতিক সংস্থার চাকরি ছেড়ে দিয়ে হয়ে গেলেন ক্যাব ড্রাইভার৷ যাতে কাজের চাপে তাঁকে বাড়ি না ফিরতে হয় আর স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়াও এড়ানো সম্ভব হয়!

    অবিশ্বাস্য শুনতে লাগলেও বাস্তবে এমনটাই হয়েছে৷ কাউকে কিছু না জানিয়েই মোটা মাইনের চাকরিতে ইস্তফা দিয়ে হরিয়ানার মেওয়াটে গিয়ে গাড়ি চালাতে শুরু করেন তিনি৷ কিন্তু তাঁর স্ত্রী যখন আদালতের দ্বারস্থ হন, তখন তিনি বাধ্য হয়ে বাড়িতে ফিরে আসেন৷

    দিল্লি পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চের তরফে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবারই ফিরে এসেছেন ৩৫ বছর বয়সি ওই ব্যক্তি৷ ক্রাইম ব্রাঞ্চের েডপুটি কমিশনার মণিকা ভরদ্বাজ জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার ওই দম্পতির বিয়ের দশ বছর পূর্তি হয়েছে৷ দম্পতির কাউন্সিলিং করিয়েছে পুলিশ৷ আপাতত তাঁরা ফের একসঙ্গে সংসার করতে রাজি হয়েছেন বলে দাবি করেছেন ওই পুলিশ আধিকারিক৷

    পুলিশ জানিয়েছে, গত ১২ এপ্রিল পর্যন্ত দু' জনের মধ্যে সবকিছু ঠিকঠাকই চলছিল৷ স্ত্রী এবং আটমাসের সন্তানকে নিয়ে সুখেই সংসার করছিলেন ওই ব্যক্তি৷ সেই সময় তিনি এই রংয়ের সংস্থায় চাকরি করতেন৷ বেতন পেতেন ২৫ হাজার টাকার মতো৷ কিন্তু তার পর থেকেই ছোট ছোট বিষয় নিয়ে দু' জনের মধ্যে ঝগড়া, অশান্তি শুরু হয়৷ যা চরম পর্যায় পৌঁছয়৷ শেষ পর্যন্ত অশান্তি থেকে বাঁচতে চাকরি ছেড়ে নয়ডা থেকে মেওয়াত চলে যান ওই ব্যক্তি৷

    পুলিশ আরও জানিয়েছে, স্বামী উধাও হয়ে যাওয়ার পরই তাঁর এক ঘনিষ্ঠ বন্ধুর উপরে সন্দেহ হয় স্ত্রীর৷ ওই বন্ধুর পলিগ্রাফ টেস্ট করানোর জন্য দাবি নিয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হন তিনি৷ স্ত্রী আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন, বন্ধুর মাধ্যমে এই খবর পেয়েই ফিরে আসেন ওই ব্যক্তি৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: