কালা জাদুর কোপ! কাকিমার মাথা কেটে, হাতে ঝুলিয়ে ১৩ কিমি পথ পেরিয়ে থানায় যুবক‌

বুদ্ধুরামের সন্দেহ ছিল, কাকিমার কালাজাদুর কারণেই তাঁর মেয়ের মৃত্যু হয়েছে

বুদ্ধুরামের সন্দেহ ছিল, কাকিমার কালাজাদুর কারণেই তাঁর মেয়ের মৃত্যু হয়েছে

  • Share this:

    #‌ভুবনেশ্বর:‌ ভয়ানক ঘটনা, নারকীয়!‌ কয়েকদিন আগেই ওড়িশার ময়ুরভঞ্জ জেলার বাসিন্দা বুদ্ধুরাম সিংয়ের মেয়ের মৃত্যু হয়। বুদ্ধুরামের সন্দেহ ছিল, কাকিমার কালাজাদুর কারণেই তাঁর মেয়ের মৃত্যু হয়েছে।

    তাই কাকিমা চম্পা সিংকে শেষ করে দিল বুদ্ধু রাম। কুড়ুল দিয়ে মাথা কেটে সেই মাথা নিয়ে পাড়ি দিল ১৩ কিমি পথ। হাজির হল থানায়। আত্মসমর্পণ করল পুলিশের কাছে। জমা দিয়ে দিল দিল কাটা মাথা আর কুড়ুল।

    ওড়িশার শহর থেকে অনেক দূরের এক গ্রামে ঘটনা যাওয়া এমন ঘটনা স্তম্ভিত করে দিয়েছে পুলিশ প্রশাসনকে। সোমবার ঘটে যাওয়া এই ঘটনায় প্রাথমিকভাবে পুলিশ ভেবেছিল, বুদ্ধুরামের মানসিক সমস্যা আছে। কিন্তু পরে দেখা যায়, সে ভেবেচিন্তেই যা ঘটানোর ঘটিয়েছে।

    ঘটনার বিবরণ দিতে গিয়ে পুলিশের কাছে বুদ্ধুরাম জানিয়েছে, চম্পা সিং সেই সময় ঘুমোচ্ছিলো। ঘুমের মধ্যেই তাঁকে টেনে বাইরে আনে বুদ্ধুরাম। তারপর কুড়ুল দিয়ে হত্যা করে। গলা কেটে গামছায় পেঁচিয়ে সে বেরিয়ে পড়ে থানার উদ্দেশ্যে। অনেকেই এই ঘটনার সময় সামে উপস্থিত ছিলেন, কিন্তু কেউ বুদ্ধুরামকে আটতে যাননি।

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: