এখনও মেলেনি মালদহে মৃত তরুণীর পরিচয়, সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখছে পুলিশ

এখনও মেলেনি মালদহে মৃত তরুণীর পরিচয়, সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখছে পুলিশ
  • Share this:

#মালদহ: হায়দরাবাদে খুন ও গণধর্ষণের ঘটনার কয়েকদিনের মধ্যেই মালদহের ধানতলায় তরুণীর দগ্ধ দেহ উদ্ধার। যা নিয়ে আলোচনা চলল সংসদেও। তবে, ঘটনার চব্বিশ ঘণ্টা কেটে গেলেও এখনও পর্যন্ত মিলল না কোনও সূত্র। এমনকী, মেলেনি মৃতার পরিচয়ও। সূত্র পেতে এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

ঘটনার দশ দিনের মাথায় এনকাউন্টারে মৃত্যু হায়দরাবাদে খুন ও ধর্ষণের ঘটনায় চার অভিযুক্তর। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই দ্বিধাবিভক্ত সকলেই। এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার মালদহের ধানতলা থেকে উদ্ধার তরুণীর দগ্ধ দেহ। স্থানীয়রা তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগও তোলেন। পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। ঘটনার চব্বিশ ঘন্টা পার হলেও, কোনও সূত্রই এলো না পুলিশের হাতে। এলাকার কয়েকটি সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখেও সন্দেহজনক কিছু মেলেনি বলে জানিয়েছে পুলিশ।মৃতার পরিচয় জানতেও হাতের আংটি ও বালার সূত্র ধরে খোঁজ চলছে।

ইংরেজবাজার থানার ধানতলা এলাকায় রাস্তার ওপর তরুণীর দগ্ধ দেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। বৃহস্পতিবার সকালে এই ঘটনার খবর পেয়েই এলাকায় পৌঁছয় ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। দেহ তুলতে বাধা দেয় স্থানীয়রা। পুলিশকে ঘিরে শুরু হয় বিক্ষোভ। পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে এলাকায় পৌঁছয় বিশাল পুলিশ বাহিনী। তরুণীর দেহে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। যা থেকে স্থানীয়দের দাবি ধর্ষণ করেই খুন করা হয়েছে তরুণীকে।

ঘটনাস্থল ঘুরে দেখেন পুলিশ কর্তারা। সংগ্রহ করা হয় একাধিক নমুনা। প্রাথমিক ভাবে পুড়িয়ে মারার ঘটনা সম্পর্কে পুলিশ নিশ্চিত হলেও, ময়না তদন্তের পরই জানা যাবে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ। দেহ বিকৃত হয়ে থাকায় পরিচয় সম্পর্কেও নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয়দের দাবি এই এলাকায় সচরাচর গ্রামের কেউ যাতায়াত করে না। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে দেশলাইয়ের বাক্স, জুতো। তাই বহিরাগত কেউ এই কাজ করে থাকতে পারে বলে দাবি স্থানীয়দের। এলাকার নিরাপত্তার দাবি জানিয়েছেন তারা।

First published: 06:44:18 PM Dec 06, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर