• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • MAHUA MOITRA ATTACKS IT MINISTER ASHWINI VAISHNAW OVER REMARKS ON WEST BENGAL IN PARLIAMENT BJP BROUGHT SNOOPING CULTURE FROM GUJARAT SB

Mahua Moitra in Parliament: সংসদে বঙ্গসংস্কৃতি নিয়ে 'কটাক্ষ'! কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে তুলোধনা গর্বিত মহুয়ার

মহুয়ার নিশানায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

Mahua Moitra in Parliament: মহুয়া মৈত্র যাঁর বিরুদ্ধে স্বাধিকার ভঙ্গের নোটিশ এনেছেন সেই কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব বঙ্গসংস্কৃতির কথা তুলে মন্তব্য করেছেন।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: গত ১৯ জুলাই সংসদের বাদল অধিবেশনের প্রথম দিনে লোকসভায় যে বিবৃতি দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব, তাকেই চ্যালেঞ্জ করেলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। একদিকে যখন তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেনকে রাজ্যসভা থেকে সাসপেন্ড করা হয়েছে, তখন এদিন সংসদের বাইরে ও ভেতরে সরকারের বিরুদ্ধে আরও সুর চড়াল তৃণমূল।

বাদল অধিবেশনের বাকি দিনগুলির জন্য শান্তনুকে সাসপেন্ড করেছেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডু। তার পরেই প্রতিবাদ জানাতে শুরু করেন তৃণমূল সাংসদরা। ডেরেক ও’ব্রায়েন পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এনেছেন। এর পরেই লোকসভায় অশ্বিনী বৈষ্ণবের বিরুদ্ধে লোকসভার অধিবেশন পরিচালনার ২২৩, ২২৬ এবং ২২৭ নং রুল অনুযায়ী স্বাধিকার ভঙ্গের অভিযোগ এনেছেন মহুয়া মৈত্র। লোকসভার সেক্রেটারি জেনারেলকে কয়েক পাতার চিঠিতে লিখেছেন, বৈষ্ণব সংসদে দাঁড়িয়ে দীর্ঘশ্বাস নিয়ে যে বিবৃতি দিয়েছেন তা সর্বৈব মিথ্যা এবং ভুলে ভরা। সেই কারণে তাঁর বিরুদ্ধে স্বাধিকার ভঙ্গের অভিযোগে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হবে না?

মহুয়া মৈত্র আরও বলেছেন, "অতীতে গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হয়ে এইভাবেই ফোনে আড়িপাতার মডেল চালু করেছিলেন অমিত শাহ। এখনও তিনি প্রভুভক্ত, তাই গুজরাট মডেল চালু করেছেন দেশজুড়ে। কিন্তু তাঁর মনে রাখা দরকার বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নামে একজন রয়েছেন, তৃণমূল কংগ্রেস নামে একটি রাজনৈতিক দল রয়েছে, আমরা কখনই এটা মেনে নেব না।"

এদিকে মহুয়া যাঁর বিরুদ্ধে স্বাধিকার ভঙ্গের নোটিশ এনেছেন সেই কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব বঙ্গসংস্কৃতির কথা তুলে মন্তব্য করেছেন। তিনি রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠতে পারেননি। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন,‘‘বাংলার সংস্কৃতি সংসদে আমদানি করেছে তৃণমূল। যেভাবে ভোট পরবর্তী হিংসায় বাংলায় বিজেপি কর্মীরা আক্রান্ত হয়েছেন, সেভাবেই সংসদে আমাদের উপর হামলা করেছেন তৃণমূল সাংসদ।” যদিও এর পরেই টুইট করে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র অশ্বিনী বৈষ্ণবকে একহাত নিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, "মাননীয় কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি বলেছেন যে তৃণমূল বাংলার সংস্কৃতি সংসদে নিয়ে এসেছে। ঠিকই বলেছেন। পতাকা উঁচু করে তুলে ধরতে পেরে আমরা গর্বিত। ঠিক বিজেপি যেমন ‘গুজরাত সাহিব’-এর ফোনে আড়িপাতার সংস্কৃতি দেশে ছড়িয়ে দিয়েছে।"
Published by:Suman Biswas
First published: