Home /News /national /
Madras Crocodile Bank : চেন্নাইয়ের হাজার হাজার কুমির পাড়ি দিচ্ছে গুজরাতে! কয়েক দশক পরে আর্থিক হাল ফেরাতে উদ্যোগ

Madras Crocodile Bank : চেন্নাইয়ের হাজার হাজার কুমির পাড়ি দিচ্ছে গুজরাতে! কয়েক দশক পরে আর্থিক হাল ফেরাতে উদ্যোগ

Madras Crocodile Bank

Madras Crocodile Bank

Madras Crocodile Bank : মাদ্রাজ ক্রোকোডাইল ব্যাঙ্কের সংরক্ষণে বন দফতরের অধীনে এই মুহূর্তে কয়েক হাজার কুমির রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: কয়েকশো কিলোমিটার পথ পেরিয়ে চেন্নাইয়ের ১ হাজার কুমির পাড়ি দিচ্ছে গুজরাতে। গত কয়েকদিন এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছে মাদ্রাজ ক্রোকোডাইল ব্যাঙ্ক ট্রাস্ট (MCBT)। ওই সংস্থার এক আধিকারিক জানিয়েছেন, অতি দ্রুত কুমির প্রেরণের কাজ সম্পন্ন করা হবে। মাদ্রাজ ক্রোকোডাইল ব্যাঙ্কের সংরক্ষণে বন দফতরেরঅধীনে এই মুহূর্তে কয়েক হাজার কুমির রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

মাদ্রাজ ক্রোকোডাইল ব্যাঙ্কের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, দীর্ঘ কয়েক বছর সরীসৃপটিকে অন্য কোথাও স্থানান্তর করার প্রক্রিয়া বন্ধ রয়েছে। কিন্তু বিশেষ প্রয়োজনের কারণেই সম্প্রতি এই সিদ্ধান্ত বদল করা হয়েছে। বর্তমানে প্রায় এক হাজার কুমিরকে সরাসরি চেন্নাই থেকে পাঠানো হবে গুজরাতের গ্রিনস জু-লজিক্যাল রেসকিউ অ্যান্ড রি-হ্যাবিলিটেশন সেন্টারে (GZRRC)।

কিন্তু কেন এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হল? মাদ্রাজ ক্রোক' ব্যাঙ্কের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ১৯৯৪ সাল থেকে এই প্রেরণ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ রূপে বন্ধ রয়েছে। বর্তমানে ওই সংস্থার হেফাজতে কয়েক হাজার কুমির জমে গিয়েছে ইতিমধ্যেই। ফলে বহুল পরিমাণ উদ্বৃত্ত সরীসৃপের খরচ চালাতে হিমশিম অবস্থা ওই সংস্থার। তার ওপর বর্তমান করোনা মহামারীতে সংস্থার আর্থিক অবস্থা বেশ শোচনীয়। সেই কারণেই আর্থিক ভাবে রুগ্ন চিড়িয়াখানার হাল ফেরাতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওই আধিকারিক।

বর্তমানে মাদ্রাজ কুমির ব্যাঙ্ক বা ওই চিড়িয়াখানার অধীনে শুধুমাত্র কুমিরই নয়, রয়েছে আরও হাজার দু'য়েক প্রাণী। এর মধ্যে ১৫টি প্রজাতির কুমির, ১৫টি প্রজাতির সাপ আছে, কচ্ছপ রয়েছে ৪টি প্রজাতির। এছাড়াও চিড়িয়াখানাটিতে একাধিক প্রজাতির টিকটিকি ও চেলোনিয়ান রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন- ভোট না এলে নেতারা ফিরেও তাকায়নি! ছবির মতো সুন্দর এই গ্রাম এখন 'ভূতুড়ে'

সংস্থার আর্থিক হাল ফেরাতে কেন্দ্রীয় বনমন্ত্রকের কাছে কুমির স্থানান্তরের জন্য আবেদন করা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন ওই আধিকারিক। ওই আবেদনে সাড়া দিয়ে কেন্দ্রীয় বনমন্ত্রক কুমির প্রেরণের জন্য অনুমতি দেয় এমসিবিটি-কে। তবে এক হাজার কুমিরের মধ্যে প্রথম ধাপে গুজরাতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে শুধুমাত্র পুরুষ কুমিরদের। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, প্রজননের সময় মহিলা কুমিরদের গুজরাতে নিয়ে যাওয়া হবে। তবে কুমির স্থানান্তরের সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি বন দফতরের অধীনে রয়েছে বলেই জানা গিয়েছে। আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া সংস্থার হাল ফেরাতে এই সিদ্ধান্ত বিশেষ ভাবে সাহায্য করবে বলে জানিয়েছেন ওই আধিকারিক। মাদ্রাজ ক্রোক ব্যাঙ্ককে পৃথিবীর অন্যতম সরীসৃপ চিড়িয়াখানায় তৈরি করাই তাঁদের লক্ষ্য বলে জানিয়েছেন তিনি।

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

Tags: Chennai, Gujarat

পরবর্তী খবর