• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • দেশ
  • »
  • LADDOOS MADE WITH CEREALS AND PULSES DATING BACK TO 2600 BCE FOUND DURING EXCAVATION AT HARAPPAN SITE PB

Harappa: খ্রিস্টের জন্মের ২৬০০ বছর আগের লাড্ডু রয়েছে অবিকৃত ! হরপ্পা খননে চাঞ্চল্য

Harappa: খ্রিস্টের জন্মের ২৬০০ বছর আগের লাড্ডু রয়েছে অবিকৃত ! হরপ্পা খননে চাঞ্চল্য

Harappan Civilisation

অত বছর আগেও ডাল ও নানা রকমের দানাশস্য দিয়ে তৈরি লাড্ডু খাওয়ার চল ছিল হরপ্পায়(Harappan Civilisation)

  • Share this:

#রাজস্থান: আজ থেকে চার হাজার বছর আগেও হরপ্পা সভ্যতা (Harappan Civilisation) যে কত উন্নত ছিল সেটা ইতিহাস বইয়ের দৌলতে আমরা অনেকেই জানি। সাম্প্রতিক উৎখননে উঠে এল আর কিছু চমকপ্রদ তথ্য। হরপ্পার মানুষ ঠিক কী খেতেন সেই বিষয়ে গবেষণা করতে গিয়ে জানা গিয়েছে যে অত বছর আগেও ডাল ও নানা রকমের দানাশস্য দিয়ে তৈরি লাড্ডু খাওয়ার চল ছিল হরপ্পায়।

জার্নাল অফ আর্কিওলজিকাল সায়েন্স পত্রিকায় এই গবেষণা প্রকাশিত হয়েছে। লখনউয়ের বীরবল সাহানি ইন্সটিটিউট অফ প্যালিওসায়েন্স এবং নতুন দিল্লির আর্কিওলজিকাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া যৌথ ভাবে এই উৎখনন চালিয়েছে রাজস্থানের কিছু অংশে। পশ্চিম রাজস্থানে পাকিস্তান সীমান্ত সংলগ্ন বিনজোর গ্রামে ২০১৪ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে সাতখানা বড় আকারের লাড্ডু আবিষ্কৃত হয়েছে। প্যালিওসায়েন্স বিভাগ থেকে রাজেশ অগ্নিহোত্রী জানিয়েছেন যে রাজস্থানের অনুপগড় অঞ্চলে উৎখননের সময়ে বড় আকারের লাড্ডু সমেত ষাঁড়ের মূর্তি এবং তামার কুঠার জাতীয় অস্ত্র পাওয়া গিয়েছে।

কিন্তু সময়ের হিসেব মতো কোনও খাদ্যবস্তু এত দিন থাকার কথা নয়। সেটা মাটির সঙ্গে মিশে যাওয়ার কথা। সাধারণত প্রত্নবিদরা অন্যান্য তথ্য থেকে বিশ্লেষণ করেন যে কোনও নির্দিষ্ট যুগের মানুষ কী খেতেন। তবে এক্ষেত্রে একটি ব্যতিক্রম দেখা গিয়েছে। যেখানে লাড্ডুগুলো ছিল তার উপরে ভারী ছাদ ভেঙে পড়ায় ওগুলো আড়াল হয়ে ছিল। যদি লাড্ডু ভেঙে যেত তাহলে মাটিতে মিশে যেতে পারত। লাড্ডু থেকে কিছু নমুনা নিয়ে পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে যে তাতে মেশানো আছে বার্লি, গম, ছোলা, মুগ ডাল ও সবজিজাত তেল।

লাড্ডুর আকার দেখে প্রত্নবিদরা নিশ্চিত হয়েছেন যে এগুলি মানুষেরই তৈরি। তবে যেহেতু ঘঘর নদি সংলগ্ন এলাকায় এগুলো পাওয়া গিয়েছে, তাই তাঁদের ধারণা এগুলো কোনও বিশেষ পুজোর উদ্দেশ্যে নির্মিত হয়েছিল। প্রথমে মনে করা হয়েছিল যে এগুলো আমিষ লাড্ডু। যদিও প্যালিওসায়েন্স বিভাগের সিনিয়ার বিজ্ঞানী আঞ্জুম ফারুকি বলেছেন যে তার সম্ভাবনা কম কারণ হরপ্পার অধিবাসীরা বেশিরভাগ কৃষিজীবী ছিলেন। তাঁরা বেশি প্রোটিন পাওয়ার জন্য এরকম লাড্ডু বানিয়ে থাকতে পারেন। এই লাড্ডুগুলো আবিষ্কারের পর শুধু যে হরপ্পাবাসীদের খাদ্যাভাস সম্পর্কে জানা গিয়েছে তা নয়, জানা গিয়েছে কী ধরনের শস্য চাষ করা হত সেই বিষয়েও!

Published by:Piya Banerjee
First published:

লেটেস্ট খবর