• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • Ratan Tata Personal Secretary Shantanu Naidu: রতন টাটার কাঁধে হাত! কে এই ব্যক্তি যাঁকে এত ভালবাসেন '৮৫-র যুবক'!

Ratan Tata Personal Secretary Shantanu Naidu: রতন টাটার কাঁধে হাত! কে এই ব্যক্তি যাঁকে এত ভালবাসেন '৮৫-র যুবক'!

Ratan Tata Personal Secretary Shantanu Naidu: এই যুবকের সঙ্গে রক্তের সম্পর্ক নেই। তবুও তাঁকে এত ভালবাসেন রতন টাটা!

Ratan Tata Personal Secretary Shantanu Naidu: এই যুবকের সঙ্গে রক্তের সম্পর্ক নেই। তবুও তাঁকে এত ভালবাসেন রতন টাটা!

Ratan Tata Personal Secretary Shantanu Naidu: এই যুবকের সঙ্গে রক্তের সম্পর্ক নেই। তবুও তাঁকে এত ভালবাসেন রতন টাটা!

  • Share this:

    #মুম্বই: বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় শিল্পপতিদের একজন তিনি। রতন টাটা তাঁর কাজের জন্য বিশ্বব্যাপী পরিচিত। ২৮ ডিসেম্বর, ২০২১ মঙ্গলবার রতন টাটা তার ৮৪তম জন্মদিন উদযাপন করেছিলেন। তাঁর জন্মদিন উদযাপনের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

    এই ভিডিওতে রতন টাটাকে চেয়ারে বসে সামনের টেবিলে একটি ছোট কাপকেক কাটতে দেখা যাচ্ছে। রতন টাটা একটি ছোট কেকের উপর লাগানো মোমবাতি নিভিয়ে কেক কাটলেন। তার পর তাঁর সামনের টেবিলে বসা যুবকটি রতন টাটার কাছে এসে কাঁধে হাত রাখেন। সেই যুবক পাশে বসে রতন টাটাকে এক টুকরো কাপকেক খাওয়ান।

    আরও পড়ুন- স্টেট ব্যাঙ্কে ভয়াবহ ডাকাতি, আততায়ীর গুলিতে মৃত ১ কর্মী!

    ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, রতন টাটা কোনওরকম জাঁকজমক ছাড়াই একটি সস্তা কেক কেটে নিজের জন্মদিন উদযাপন করেছেন। এই উদযাপনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, তিনি  জন্মদিন অত্যন্ত সরলভাবে উদযাপন করেছেন। বর্তমানে এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

    কিন্তু এই ভিডিও দেখে অনেকেই ভাবছেন, কে যে যুবক রতন টাটার সঙ্গে কেক কাটলেন, তিনি কে? জানলে অবাক হবেন, সেই ছেলের সাথে রতন টাটার কোনও পারিবারিক সম্পর্ক নেই। কিন্তু তার পরও তাঁর সঙ্গে রতন টাটা জন্মদিন উদযাপন করলেন। তবে রতন টাটার সঙ্গে ওই যুবকের বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে।

    ভিডিওতে শান্তনু নাইডু নামের সেই যুবক রতন টাটার কাঁধে হাত রেখে কেক খাওয়ান। শান্তনু রতন টাটার ব্যক্তিগত সচিব। রতন টাটা তরুণদের মধ্যে খুব জনপ্রিয়। তাঁর বক্তৃতা এবং গল্প প্রতিনিয়ত সামাজিক নেটওয়ার্কে ভাইরাল হয়। কিন্তু কম লোকই জানেন, ৮৫ বছর বয়সী এক যুবক রতন টাটার প্রাইভেট সেক্রেটারি হিসাবে কাজ করেন।

    আরও পড়ুন- রণথম্বর জাতীয় উদ্যানে পর্যটকদের সামনেই বাঘিনির আক্রমণে ছিন্নভিন্ন পথকুকুর

    শান্তনু নাইডু মুম্বাইতে থাকেন। তিনি এমন একজন ভাগ্যবান যুবক, যাঁর উপর মুগ্ধ হয়ে রতন টাটা নিজেই ফোন করেছিলেন তাঁকে। রতন টাটা তাঁকে বলেছিলেন, তোমার সব কাজ দেখে আমি মুগ্ধ। তুমি কি আমার সহকারী হবে?

    শান্তনু, রতন টাটার সঙ্গে কাজ করেন। হিউম্যানস অফ বোম্বে ফেসবুক পেজে তাঁর সাফল্যের গল্প লিখেছেন। এর পরই তিনি আলোচনায়। শান্তনু বলেছেন, ২০১৪ সালে তাঁর জীবন বদলে যায়। প্রায় পাঁচ বছর আগে পথ দুর্ঘটনায় একটি কুকুরকে মরতে দেখেন। কুকুরদের এভাবে মরার হাত থেকে বাঁচানোর কথা ভাবতে শুরু করেন শান্তনু। এর পরই কুকুরদের বাঁচানাের জন্য কলার তৈরির আইডিয়া বের করেন তিনি। একটি চকচকে কলার, যা চালকরা দূর থেকে দেখতে পাবে। তাঁর সেই আইডিয়া রতন টাটারও দারুন পছন্দ হয়ে যায়।

    Published by:Suman Majumder
    First published: