অবাক কাণ্ড ! জল থেকে উঠে মন্দিরে ঢুকে গেল কুমির ! চুপ করে বসে নারায়ণ পুজো দেখল !

অবাক কাণ্ড ! জল থেকে উঠে মন্দিরে ঢুকে গেল কুমির ! চুপ করে বসে নারায়ণ পুজো দেখল !

সাধারণত বাবিয়া হ্রদেই থাকে। কিন্তু এ বার কী জানি কোন মর্জি হয়েছে তার, ঘুরে দেখে গিয়েছে সে মন্দিরের অভ্যন্তর!

সাধারণত বাবিয়া হ্রদেই থাকে। কিন্তু এ বার কী জানি কোন মর্জি হয়েছে তার, ঘুরে দেখে গিয়েছে সে মন্দিরের অভ্যন্তর!

  • Share this:

#কেরল: ভক্তি এবং দৈব মাহাত্ম্যের ব্যাপারটা তো আছেই! তার সঙ্গে রয়েছে বিশাল হ্রদে ঘেরা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যও। তার পরেও কিন্তু কেরলের অনন্তপুর হ্রদ মন্দির বিখ্যাত হয়ে আছে স্রেফ তার পোষ্যের কারণে! আর সেটা এমন কিছু অন্যায়ও নয়। দক্ষিণ এবং উত্তর ভারতের অনেক মন্দিরেই হাতি দেখা যায়, কিন্তু মন্দিরসংলগ্ন হ্রদে কুমিরের অবস্থান কে কবে দেখেছেন?

তা, সেটা যে কেরলের অনন্তপুর হ্রদ মন্দিরে গেলেই চাক্ষুষ করা যায়, এই ব্যাপারটাকে উপেক্ষা করা যায় না কোনও মতেই। খবর মোতাবেকে মন্দিরের এই পোষা কুমিরের নাম বাবিয়া। প্রায় ৭০ বছর হয়ে গেল দিব্যি সুন্দর জীবন কাটাচ্ছে সে নারায়ণকে নিবেদিত অনন্তপুর হ্রদ মন্দিরকে ঘিরে।

সাম্প্রতিক খবর বলছে যে এ হেন বাবিয়া দিন কয়েক আগেই না কি জল থেকে উঠে এসেছিল মন্দিরে। আর এমন কাণ্ডটিও সে করেছে ৭০ বছরে এই প্রথম! সাধারণত বাবিয়া হ্রদেই থাকে। কিন্তু এ বার কী জানি কোন মর্জি হয়েছে তার, ঘুরে দেখে গিয়েছে সে  মন্দিরের অভ্যন্তর!

গুজবে রটেছে, বাবিয়া না কি গুটি-গুটি পায়ে গর্ভগৃহে ঢুকে অনন্তশয্যায় শুয়ে থাকা নারায়ণকে প্রণাম সেরে এসেছে। যদিও মন্দিরের প্রধান পুরোহিত চন্দ্রপ্রকাশ নাম্বিসান এই গুজব উড়িয়ে দিয়ে জানিয়েছেন সত্যিটা! বলেছেন যে বাবিয়া মন্দিরের বাইরের অংশেই খানিকক্ষণ ঘোরাফেরা করেছিল। তার পর বারকয়েক অনুরোধ করায় আবার সে ফিরেও গিয়েছে জলে।

জানা যায়, বাবিয়ার এই মন্দিরে আগমন বেশ অবাক করার মতোই ঘটনা! কী ভাবে সে মন্দির সংলগ্ন হ্রদে এল আর কেনই বা এল, সেই রহস্য এখনও উদ্ধার হয়নি। সব চেয়ে অবাক করার বিষয় তার স্বভাব। সে খুবই শান্ত এবং নিরামিষভোজী। হ্রদে প্রচুর মাছ থাকলেও সে তাদের মুখে পোরে না! স্রেফ মন্দিরের নিরামিষ প্রসাদ খেয়েই দিন কাটায়! এমনকি বাবিয়া সাঁতরে বেড়াচ্ছে আর পুরোহিতরা স্নান করছেন- এমন দৃশ্যও দেখা গিয়েছে! ভক্তরাও এই মন্দিরে এলে বাবিয়াকে নির্ভয়ে প্রসাদ খাইয়ে যান- কোনও দিন সে কারও ক্ষতি করেনি! দেখা যাক, এ বার থেকে সে মাঝে মাঝেই জল ছেড়ে মন্দিরে উঠে আসে কি না!

Published by:Piya Banerjee
First published: