Kerala Woman Cop: ৬ মাসের সন্তান-সহ ১৮ বছরে স্বামী পরিত্যক্তাই এখন পুলিশ অফিসার, কুর্নিশ অ্যানি!

অ্যানি শিবা।

তবে হার মানেননি অ্যানি শিবা (Anie Siva)। সেই ভারকালা (Varkala police station) এলাকারই পুলিশ অফিসার (Police Inspector) হয়েছেন অ্যানি।

  • Share this:

    #ভারকালা: ১৮ বছর বয়সে সন্তান-সহ স্বামী বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছিলেন। পরিবারের অমতে গিয়ে বিয়ে করেছিলেন বলেই হয়তো শেষ পর্যন্ত এই পরিণাম হয়েছিল তাঁর জীবনে। তবে হার মানেননি অ্যানি শিবা (Anie Siva)। কেরালার ভারকালায় লেমোনেড ও আইসক্রিমের দোকান খুলে পর্যটন ব্যবসায়ে যোগদান করেছিলেন। আর স্বপ্ন দেখা ছাড়েননি। যার জেরে আজ তিনি নিজের স্বপ্নপূরণে সফল হয়েছেন। সেই ভারকালা (Varkala police station) এলাকারই পুলিশ অফিসার (Police Inspector) হয়েছেন অ্যানি।

    অ্যানি শিবার এমন অসামান্য সাফল্যে খুশি হয়ে কেরালা পুলিশ তাঁকে সাধুবাদ জানিয়েছে। ট্যুইট করে অ্যানির প্রশংসায় লেখা হয়েছে, 'মনের জোর ও আত্মবিশ্বাসের সত্যিকারের উদাহরণ। ৬ মাসের সন্তানকে নিয়ে ১৮ বছরের মেেয়কে রাস্তায় ফেলে দেওয়া হয়েছিল। তিনিই এখন ভারকালা পুলিশ স্টেশনের সাব-ইন্সপেক্টর।' সমস্ত বাধা-বিপত্তিকে জয় করে ভারকালা পুলিশ স্টেশনের সাব-ইন্সপেক্টরের পদে প্রবেশনারি পিরিয়ড করছেন অ্যানি।

    অ্যানির কথায়, 'কয়েকদিন আগেই জানতে পারি, আমার পোস্টিং হয়েছে ভারকালা পুলিশ স্টেশনে। এই এলাকায় দিনের পর দিন অনেক চোখের জল ফেলেছি। আমাকে ও আমার সন্তানকে কেউ দেখার ছিল না। ভারকালা শিবগিরি আশ্রম এলাকায় আমি অনেক কাজের চেষ্টা করেছি। শেষে লেমোনেড ও আইসক্রিম বিক্রির ব্যবসাও করেছি। কোনওটাই চলেনি। তখন এক ব্যক্তি আমাকে টাকা দিয়ে সাহায্য করে উপদেশ দিয়েছিলেন সাব-ইন্সপেক্টরের পরীক্ষায় বসতে।'

    তার পরেই পরীক্ষায় পাশ করে এখন ওই এলাকারই পুলিশ স্টেশনে সাব-ইন্সপেক্টরের ভূমিকায় কাজ পেয়েছেন অ্যানি। বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিরাও অ্যানির সাফল্যে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। সমস্ত বাধাকে জয় করে নিজের জেদের বশে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করার এমন চেষ্টাকে কুর্নিশ।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: