• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • KERALA TEACHERS SEXIST REMARKS TRIGGER WATERMELON PROTEST WOMEN POST NUDE PHOTOS

‘বোরখা না পরে মেয়েরা খোলা তরমুজের মতো বুক দেখায় ’, শিক্ষকের মন্তব্যে টপলেস ছবি পোস্ট করে ছাত্রীদের প্রতিবাদ

The professor has said women in his college were not wearing the hijab properly and deliberately exposing their chests like “sliced watermelon.”

  • Share this:

    #কোঝিকোড়: মুসলিম ছাত্রীদের পোশাক নিয়ে এহেন অশালীন ও কুরুচিকর মন্তব্য শোনা গেল কেরালার এক অধ্যাপকের মুখে। কেরলের কোঝিকোড়ের ফারুক ট্রেনিং কলেজের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর জৌহর মনাভীরের এহেন মন্তব্যে সমালোচনায় উত্তাল কেরল। সোমবার অধ্যাপকের ওই অশালীন মন্তব্যের প্রতিবাদে প্রতিষ্ঠানের সামনে কাটা তরমুজ নিয়ে বিক্ষোভে সামিল হন ছাত্রছাত্রীরা। অভিযুক্ত অধ্যাপকের শাস্তির দাবিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় টপলেস ছবি পোস্ট করে চলছে ছাত্রীদের অভিনব প্রতিবাদ।

    বিতর্কের সূত্রপাত অধ্যাপকের মুসলিম ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে করা অশালীন ও কুরুচিকর মন্তব্য থেকে। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুসারে ছাত্রীদের পোশাক সম্পর্কে তিনি বলেন, ইসলাম ধর্ম মেনে মেয়েরা হিজাব পরছে না। ইচ্ছে মতো খোলা বুক প্রদর্শন করছে। পুরুষ ও মুসলিম শিক্ষকদের যা আকর্ষণ করে তা হল মেয়েদের বুক ।তাই তা ঢেকে রাখা উচিত । এতেই শেষ নয়, মেয়েদের বক্ষদেশকে তিনি তরমুজের টুকরোর সঙ্গে তুলনা করেন। বোরখা নয়, মেয়েদের লেগিংস পরা নিয়েও তিনি নোংরা ইঙ্গিত করেন ।

    এতেই ক্যাম্পাস জুড়ে ওঠে প্রতিবাদের ঝড়। অধ্যাপকের মুখে এমন অশালীন মন্তব্যের প্রতিবাদে ফেটে পড়ে গোটা কেরল। কলেজের গেটে তরমুজ ফাটিয়ে চলে বিক্ষোভ। ক্যাম্পাস ছাড়িয়ে প্রতিবাদ ছড়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। অধ্যাপকের এহেন নোংরা মন্তব্যের প্রতিবাদে তরমুজের টুকরো দিয়ে বুক ঢেকে একের পর এক টপলেস ছবি পোস্ট করতে থাকে ছাত্রীরা। কলেজের প্রিন্সিপ্যালের কাছে অভিযুক্ত অধ্যাপকের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওযার আর্জি জানালে তিনি জানান, ওই মন্তব্য কলেজের বাইরে কোথাও করেছেন ওই অধ্যাপক। ফলে কলেজে কোনও অভিযোগ জমা পড়েনি। তাই কলেজ কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থা নেওয়ার কোনও প্রশ্ন উঠছে না।

    First published: