বাস থাকতেও টানা ২০ বছর নদীতে সাঁতার কেটে স্কুলে পৌঁছান কেরলের শিক্ষক, কিন্তু কেন ?

বাস থাকতেও টানা ২০ বছর নদীতে সাঁতার কেটে স্কুলে পৌঁছান কেরলের শিক্ষক, কিন্তু কেন ?
  • Share this:

#কেরল: কথায় বলে, ইচ্ছে থাকলে উপায় হয়। আর সেই কথাই আরেকবার প্রমাণ করলেন কেরলের এক শিক্ষক! রাজ্যের পরিবহণ ব্যবস্থা ভাল নয়, তাই বাসে চড়ে সময়মতো স্কুলে পৌঁছাতে পারেন না! ফলে তিনি বিকল্প এক উপায় বের করলেন, যা শুনলে চোখ কপালে উঠবে!

কেরলের মালাপ্পুরমের বাসিন্দা, বছর দল্লিশের আবদুল মালিক একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক। বাড়ি থেকে তাঁর স্কুলের দূরত্ব ১২ কিলোমিটার। বাসে বা ট্রেনে সে রাস্তা অতিক্রম করতে বড়জোর ঘণ্টাখানেক লাগতে পারে! কিন্তু দুর্বল পরিবহণ ব্যবস্থার কারণে আবদুল মালিকের সেই রাস্তা যেতে প্রায় দু-তিনঘণ্টা সময় লেগে যায়! কাজেই সময়মতো স্কুলে পৌঁছাতে পারতেন না! এতেই বিবেক দংশন হয় আবদুলের! একজন শিক্ষক হয়েই যদি নিয়ম না মানেন, তবে ছাত্র ছাত্রীদের কী শিক্ষা দেবেন তিনি?

অনেক ভেবে নদী পেরিয়ে স্কুলে যাতায়াতের সিদ্ধান্ত নেন শিক্ষক ৷ নৌকায় চড়ে নয়, প্রতিদিন সাঁতার কেটে স্কুলে পৌঁছান ওই শিক্ষক। নিয়ম করে সকাল ৯টায় বাড়ি থেকে বেরন! নিজের পোশাক, জুতো, টিফিন বক্স প্লাস্টিকে জড়িয়ে কাঁধে তুলে নেন, কোমরে জড়িয়ে নেন একটি টায়ার টিউব ৷ তার দিব্য সাঁতার কেটে নদী পেরন। নদীর পাড়ে পোশাক পরিবর্তন করেন। তারপর ধীরে সুস্থে পাহাড়ের কোল ঘেঁষা রাস্তা দিয়ে পৌঁছে যান স্কুলে। এক-দু’দিন নয়, টানা ২০ বছর ধরে এটাই রুটিন আবদুল মালিকের।

অন্য ভিডিও দেখুন-নিষেধাজ্ঞার পরও বাজছে বাবুলের গান, কমিশনের দেখা উচিত, দাবি ফিরহাদের

First published: April 8, 2019, 4:50 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर