লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা , উদ্বেগজনক ৮ রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি

বন্যায় ভাসছে দেশের আট রাজ্য। ভয়ঙ্কর হচ্ছে কেরলের পরিস্থিতি। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানিয়েছেন, গত আটচল্লিশ ঘণ্টায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা ষাট।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 12, 2019 12:42 PM IST
লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা , উদ্বেগজনক ৮ রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 12, 2019 12:42 PM IST

#বেঙ্গালুরু: বন্যায় ভাসছে দেশের আট রাজ্য। ভয়ঙ্কর হচ্ছে কেরলের পরিস্থিতি। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানিয়েছেন, গত আটচল্লিশ ঘণ্টায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা ষাট। টানা বৃষ্টির জেরে গত কয়েকদিনে মধ্যপ্রদেশে প্রাণ হারিয়েছেন বাইশ জন।

পৃথিবীর কাঁধে দুই সন্তান। বন্যা বিধ্বস্ত গুজরাতের এই ছবি। মোরবি জেলার কল্যাণপুরে প্রায় এক কোমড় জলের মধ্যে দুই শিশুকে কাঁধে নিয়ে হাঁটলেন এক পুলিশ কর্মী। নাম পৃথ্বীরাজ জাডেজা। টানা বৃষ্টি। বাঁধের জল ছাড়া সহ একাধিক ঘটনায় গত কয়েকদিনে ভাসছে দেশের মধ্য-পশ্চিম এবং দক্ষিণাঞ্চল। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত কর্নাটক এবং কেরল। গত পঞ্চাশ বছরে সবচেয়ে বড় বন্যার সাক্ষী হয়েছে কেরল। এক বছর আগের সেই ক্ষত সেরে ওঠার আগেই নতুন করে ধাক্কা। ওয়াইনাড, মাল্লাপুরম, ত্রিশূর-সহ একধিক জেলা বানভাসি। গত কয়েকদিন বন্ধ থাকার পর রবিবার থেকে স্বাভাবিক হয়েছে কোচি বিমানবন্দর। তাতেও উদ্বেগ কমছে না। মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানিয়েছেন, পরিস্থিতি মোকাবিলায় খোলা হয়েছে ত্রাণ শিবির। প্রায় দু’লক্ষ মানুষকে ত্রাণ শিবিরে সরানো হয়েছে। বাঁধ থেকে জল ছাড়ায় অবনতি হচ্ছে পাশের রাজ্য কর্নাটকের। আকাশপথে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তামিলনাড়ু-সহ দক্ষিণের তিন রাজ্যের উপর নজর রেখেছে নৌসেনা।

রবিবারও তেমন কোনও উন্নতি হয়নি পশ্চিমের দুই রাজ্য মহারাষ্ট্র এবং গুজরাতের। সুরাত-সহ একাধিক জেলা এখনও জলের তোলার। জল বাড়ছে মহারাষ্ট্রের বেশ কিছু জেলাতেও। তার মধ্যেই কোলাপুরে খোলা হয়েছে ত্রাণ শিবির। পরিস্থিততে নজর রাখছে বায়ুসেনা।

আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস, আগামী আটচল্লিশ ঘণ্টায় আরও ভারী বৃষ্টি হতে পারে। ফলে আরও সতর্ক হচ্ছে ওই আট রাজ্যের রাজ্যপ্রশাসন। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সাহায্যের আবেদন করেছে কেরল সরকার।

First published: 12:42:20 PM Aug 12, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर