• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • কর্ণাটক সরকারের নতুন প্রয়াস ! লকডাউনে বাড়ি বসেই ফোনে বা হোয়াটসঅ্যাপ অর্ডারে মিলবে প্রয়োজনীয় সামগ্রী

কর্ণাটক সরকারের নতুন প্রয়াস ! লকডাউনে বাড়ি বসেই ফোনে বা হোয়াটসঅ্যাপ অর্ডারে মিলবে প্রয়োজনীয় সামগ্রী

photo source collected

photo source collected

কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পা আজ একটি পাইলট প্ল্যানের ঘোষণা করেছেন রাজ্যের লকডাউনে থাকা মানুষদের জন্য।

  • Share this:

    #বেঙ্গালুরু: কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পা আজ একটি পাইলট প্ল্যানের ঘোষণা করেছেন রাজ্যের লকডাউনে থাকা মানুষদের জন্য। করোনা চেন ভাঙতেই এই অভিনব প্রচেষ্টা মুখ্যমন্ত্রীর। লকডাউনে গৃহবন্দি মানুষরা তাঁদের নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র এবার থেকে ফোনে অর্ডার দিতে পারবেন। হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেও নিজের জায়গা চিহ্নিত করে জিনিসপত্র অর্ডার করতে পারবেন বাড়ি বসে।

    রাজ্যের সরকারি অফিসিয়ালসরা জানিয়েছেন, লকডাউনের সময় কাউকে বাড়ি ধৈকে বেরোতে হবে না। বাজার করার জন্যও না। সবজি থেকে শুরু করে ওষুধ কোনও কিছু কেনার জন্যই কাউকে বাড়ি থেকে বেরোতে হবে না। সব কিছু এক ফোন কলেই পৌঁছে যাবে বাড়িতে।

    বেঙ্গালুরুতে এই প্রোজেক্ট অনুযায়ী কাজ শুরু হবে আজ থেকেই। ০৮০ ৬১৯১৪৯৬০ এই নম্বরে ফোন করে তাঁদের নাম, ফোন নম্বর, ঠিকানা এবং কি প্রয়োজন জানালেই তা পৌঁছে দেওয়া হবে।

    এই সার্ভিস দেওয়া হবে যে যেখান থেকে ফোন করবে সেই নিকটবর্তী দোকান বা মল থেকে। অর্ডার দেওয়ার পর কাস্টমারের কাছে একটি কনফারমেশন এস এম এস যাবে। এর পর ডেলিভারি ম্যান সেই দ্রব্য পৌঁছে দেবেন। এর পর ক্রেতারা ই ওয়ালেটস, ক্যাশ বা কার্ডে পেমেন্ট করতে পারবেন। একই রকম ভাবে হোয়াটসঅ্যাপেও পাওয়া যাবে এই সেবা।

    কর্ণাটকের সরকার মনে করেন, এতে শুধু যারা লকডাউনে আছে তাঁদের সাহায্য হবে এমন নয়। বয়স্ক মানুষরাও উপকৃত হবেন। এই দ্রব্য পৌঁছে দেওয়ার জন্য ১০ টাকা ডেলিভারি চার্জ নেওয়া হবে। আজ শুরু করা হয় সাউথ বেঙ্গালুরুর কিছু জায়গায়। সেখানকার ক্রেতারা এই সেবা পেয়ে খুবই উপকৃত। তাঁরা সরকারের এই প্রয়াসকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।

    তবে কিছু মানুষ অবশ্য বলেছেন, ডেলিভারি দিতে একটু দেরি হচ্ছে। আর যে যে ব্র্যান্ডের জিনিস চাওয়া হয়েছে সব সময় সেই ব্র্যান্ডের জিনিস পাওয়া যাচ্ছে না। যদিও সরকারি কর্মীরা ও ডেলিভারির দায়িত্বে থাকা কর্মীরা জানিয়েছেন এখন একটু অসুবিধা হচ্ছে ঠিকই। তবে কয়েকদিনের মধ্যেই এই ব্যবস্থার উন্নতি হবে। করোনার জন্য বেঙ্গালুরুতে ১৯টা হটস্পট ঘোষিত হয়েছে। কোভিড ১৯ কে রুখতেই সরকারের এই ব্যবস্থা।

    Published by:Piya Banerjee
    First published: