• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • KARNATAKA INDUSTRIALIST INSTALLS LATE WIFES STATUE TO CELEBRATE HOUSE WARMING RM

মৃত স্ত্র‌ীকে ভুলতে পারেননি কর্ণাটকের বৃদ্ধ, নতুন বাড়িতে গৃহপ্রবেশ করলেন স্ত্রীয়ের মোমের মূর্তির হাত ধরে

নতুন বাড়ির ঘৃহপ্রবেশ অনুষ্ঠানে, বাড়ির লক্ষীকে সঙ্গে নিয়েই গৃহপ্রবেশ করলেন শ্রীনিবাস! কীভাবে ? তিনি তৈরি করিয়েছেন স্ত্রী মাধবীর সিলিকন মোমের মূর্তি, তার হাত ধরেই প্রবেশ করলেন নতুন বাড়িতে

নতুন বাড়ির ঘৃহপ্রবেশ অনুষ্ঠানে, বাড়ির লক্ষীকে সঙ্গে নিয়েই গৃহপ্রবেশ করলেন শ্রীনিবাস! কীভাবে ? তিনি তৈরি করিয়েছেন স্ত্রী মাধবীর সিলিকন মোমের মূর্তি, তার হাত ধরেই প্রবেশ করলেন নতুন বাড়িতে

  • Share this:

    #কর্ণাটক: গতবছর গাড়ি দুর্ঘটনায় স্ত্রীয়ের মৃত্যু হয়েছে...এই তিন বছর স্ত্রী সশশীরে পাশে না থাকলেও, এক মুহূর্ত তাঁকে ভুলতে পারেননি কর্ণাটকের ব্যবসায়ী শ্রীনিবাস গুপ্তা। সবসময় মনে হয়েছে, পাশেই আছেন ভালবাসার মানুষটি! এবার শ্রীনিবাস যা করলেন, তাতে নেটিজেনদের চোখে জল! নতুন বাড়ির ঘৃহপ্রবেশ অনুষ্ঠানে, বাড়ির লক্ষীকে সঙ্গে নিয়েই গৃহপ্রবেশ করলেন  শ্রীনিবাস! কীভাবে ? তিনি তৈরি করিয়েছেন স্ত্রী মাধবীর সিলিকন মোমের মূর্তি,  তার হাত ধরেই প্রবেশ করলেন নতুন বাড়িতে। অনুষ্ঠানর দিন তাঁর পাশেই হাসিমুখে বসে থাকতে দেখা গেল প্রয়াত স্ত্রী মাধবীকে !  এতদিন বাদে স্ত্রীকে পাশে পেয়ে খুশিতে ডগমগ শ্রীনিবাষ, জানালেন, '' এই বাড়িটা মাধবীর স্বপ্নের বাড়ি ছিল। এত দিন পর ওকে বাড়িতে দেখতে পেয়ে কী যে শান্তি লাগছে... বোঝাতে পারব না! ''

    শ্রীনিবাসের গৃহপ্রবেশের অনুষ্ঠানের ছবি ও ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়। দেখা যাচ্ছে, নতুন বাড়িতে সোফায় স্ত্রীর মূর্তি পাশে নিয়ে বসে রয়েছেন শ্রীনিবাস। হারিয়ে যাওয়া মাধবীকে ফিরে পেয়ে খুশি গোটা পরিবার!

    একদিকে যখন খবরে আসে স্ত্রীকে পেটাচ্ছে স্বামী অথবা স্ত্রীর বর্তমানেই স্বামী অন্য কাউকে বিয়ে করছে অথবা পরকীয়ায় লিপ্ত... তখন এই শ্রীনিবাসের মত মানুষেরা ফের একবার মনে করিয়ে দেন, পৃথিবী এখনও পুরো অসুখে ভরে যায়নি! ভাল এখনও অলীক স্বপ্ন হয়নি! মানুষ আজও ভালবাসে! আর তাই তো গৃহপ্রবেশের দিন স্ত্রীকে ফিরে পেয়ে আনন্দে আত্মহারা বেল্লারির কাছে কোপ্পাল জেলার বাসিন্দা শ্রীনিবাস। জানালেন, '' গত একবছর ধরে বেঙ্গালুরুর শিল্পী শ্রীধর মূর্তি আমার স্ত্রীর মূর্তিটি বানিয়েছেন। যাতে নষ্ট না হয়ে যায়, তারজন্য ব্যবহৃত হয়েছে সিলিকন।''

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published: