corona virus btn
corona virus btn
Loading

মালয়েশিয়া ফেরত যুবকের মৃত্যু করোনার আক্রমণে নয়, রিপোর্টে উল্লেখ

মালয়েশিয়া ফেরত যুবকের মৃত্যু করোনার আক্রমণে নয়, রিপোর্টে উল্লেখ
সংগৃহীত ছবি

এরনাকুলামের সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

  • Share this:

#কোচি: ভারতে প্রবেশ করল করোনা! শনিবার ভোর-রাতে কেরলের পেয়ান্নুরের এক বাসিন্দার মৃত্যু হয় ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে। এরনাকুলামের সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

করোনার জেরে এখনও চিনে অব্যাহত মৃত্যুমিছিল। সংখ্যাটা ছাড়াতে চলেছে ৩০০০-এর কোটা। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের অঙ্কটাও। তবে শুধু চিন নয়, গোটা বিশ্বেই ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। কোরিয়াতেও মৃত্যু মিছিল চলছে। বাদ রইল না ভারত। এতদিন করোনার থাবায় ভারতের কারও মৃত্যু হয়নি। কিন্তু আর ঠেকানো গেল না। অবশেষে করোনার জেরে ৩৬ বছরের জয়নেশের মৃত্যু হয়।

জানা যাচ্ছে, সম্প্রতি মালয়েশিয়া থেকে জ্বর, সর্দি-কাশি নিয়ে দেশে ফেরেন জয়নেশ। সেখানে গত আড়াই বছর ধরে কাজ করছিলেন জয়নেশ। এয়ারপোর্ট থেকেই তাঁকে করোনা সন্দেহে এরনাকুলাম কালামাসেরি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভর্তি করানো হয়। তারপর থেকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছিল। যদিও রক্তপরীক্ষায় এইচ ওয়ান এন ওয়ান ও কোভিড ১৯ দুটিতেই নেগেটিভ রিপোর্ট এসেছিল। প্রাথমিক চিকিৎসায় জানা গিয়েছে, সাধারণ সংক্রমণের জেরেই তাঁর এই অবস্থা। ফলে তাঁকে দ্রুত ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়। কিন্তু শনিবার নিউমোনিয়া হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়।

যদিও প্রথমবার নেগেটিভ আসার পরে দ্বিতীয় বার ফের তাঁর রক্তের নমুনা নেওয়া হয় পরীক্ষার জন্য। কিন্তু সেটার ফলাফল আসার আগেই তাঁর মৃত্যু ঘটে। কিন্তু মৃত্যুর পরেও তাঁর দেহ মর্গে সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছে। দ্বিতীয় রিপোর্ট হাতে আসার পরেই তাঁর মৃতদেহ হাসপাতাল থেকে ছাড়া হবে। যদিও এই ঘটনার পর স্বাভাবিকভাবেই তৎপর হয়ে ওঠে স্বাস্থ্য বিভাগ। এখনও পর্যন্ত কেরলে ৩ জনের মধ্যে করোনা ভাইরাস পাওয়া গিয়েছে। তাঁদের আপাতত পর্যবেক্ষনে রাখা হয়েছে।

First published: March 1, 2020, 3:49 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर