দেশ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

ডেরায় হতে থাকা ধর্ষণের ঘটনা প্রথম প্রকাশ্যে আনেন এই ব্যক্তি

ডেরায় হতে থাকা ধর্ষণের ঘটনা প্রথম প্রকাশ্যে আনেন এই ব্যক্তি

২০০২ সালে প্রথম এই ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসে ৷ এই মামলায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন সাংবাদিক রাম চন্দর ছত্রপতি ৷

  • Share this:

#চণ্ডীগড়: ২০০২ সালের ধর্ষণ মামলায় দোষী সাব্যস্ত স্বঘোষিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিম। তার বিরুদ্ধে মিথ্যে সাক্ষ্য দেওয়া, প্রমাণ নষ্ট ও প্রভাব খাটানোর অভিযোগও প্রমাণিত। আগামী সোমবার তার বিরুদ্ধে সাজা ঘোষণা করবে পাঁচকুলার বিশেষ সিবিআই আদালত। শুধু ধর্ষণের ঘটনাতেই ৭ থেকে ১০ বছরের জন্য জেল খাটতে হতে পারে রাম রহিমকে। দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পরই তাকে সেনাঘাঁটিতে নিয়ে যাওয়া হয়।

২০০২ সালে প্রথম এই ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসে ৷ এই মামলায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন সাংবাদিক রাম চন্দর ছত্রপতি ৷ ১৫ বছর আগে তিনিই ধর্ষণের ঘটনাটি প্রকাশ্যে নিয়ে আসেন ৷ এর জেরে পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি করে তাকে হত্য করা হয় ৷

২০০২ সালে ডেরার ভিতর হয়ে থাকা মহিলাদের উপর যৌন হেনস্থার কথা চিঠি লিখে জানিয়েছিলেন কয়েকজন অজ্ঞাতপরিচয় মহিলা ৷ এই চিঠি পাওয়া পর ছত্রপতি এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেন ৷ পুরা সাচ নামে সংবাদপত্রে তিনি সেই সময় আশ্রমিকদের উপর হওয়া যৌন নির্যাতনের একাধিক মর্মান্তিক ঘটনা প্রকাশ্যে নিয়ে আসেন ৷

চিঠিগুলি সংবাদমাধ্যমে ছাপার কয়েকদিন পর ২৪ অক্টোবর ২০০২ সালে ছত্রপতির উপর হামলা করা হয় ৷ রিপোর্টে জানা যায় বাড়ি থেকে ডেকে পাঁচি গুলি করা হয় তাকে লক্ষ্য করে ৷ ২১ নভেম্বর ২০০২ সালে দিল্লির অ্যাপোলো হাসপাতালে তার মৃত্যু হয় ৷ ছত্রপতির হত্যা মামলা এখনও আদালতে চলছে ৷

First published: August 26, 2017, 1:41 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर