একই সঙ্গে গার্লফ্রেন্ড আর বউ! দিন ভাগাভাগি করে হোক 'ফূর্তি'! পুলিশ দিল অভিনব উপায় বাতলে...

একই সঙ্গে গার্লফ্রেন্ড আর বউ! দিন ভাগাভাগি করে হোক 'ফূর্তি'! পুলিশ দিল অভিনব উপায় বাতলে...
বলিউড ছবি ককটেল৷ প্রতীকী ছবি

এতে রাজি হয় সব পক্ষই৷ এই মর্মে এক লিখিত চুক্তিতে সই করে সকলে৷

  • Share this:

    #ঝাড়খণ্ড: তিন দিন থাকুন স্ত্রীর সঙ্গে, আর তিন দিন থাকুন প্রেমিকার সঙ্গে৷ এমনই অভিনয় উপায় সামনে এনে এক ব্যক্তিকে ঝামেলার হাত থেকে বাঁচাল পুলিশ! ঝড়খণ্ডের রাঁচি শহরে বউ আর প্রেমিকার মাঝে পড়ে গিয়ে দারুণ অশান্তির শিকার হয় রাজেশ মাহাতো নামের এক ব্যক্তি৷ বিবাহ বর্হিতভূত সম্পর্কে সে জড়িয়েছিলেন বেশ কিছুদিন৷ ধরা পড়তেই শুরু হয় চরম সমস্যা৷ পুলিশ পর্যন্ত গড়ায় বিষয়৷ তখনই পুলিশের সামনে বসে নিজেদের মধ্যে অশান্তি মিটমাট করতে উদ্যোগী হয় দুই পক্ষ! পুলিশ ঠিক করে যে বউয়ের সঙ্গে সপ্তাহে ৩ দিন কাটাবে রাজেশ আর প্রেমিকার সঙ্গে ৩ দিন কাটাতে হবে৷ বাকি ১দিন নিজে একাই থাকবে৷ এই সিদ্ধান্ত সকলের পছন্দ হয় এবং সেটা মেনে চলার কথা বলে সব পক্ষই৷

    জানা গিয়েছে যে, বিবাহিত রাজেশ এক অন্য মহিলার সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে৷ প্রেমিকার কাছে বিয়ের কথা সম্পূর্ণ গোপন রাখে সে৷ তারপরই সন্তান ও বউকে ছেড়ে প্রেমিকার সঙ্গে পালিয়ে যায় রাজেশ৷ এরপরই নিখোঁজ স্বামীর জন্য সর্দার থানায় অভিযোগ জানান রাজেশের স্ত্রী৷

    অন্যদিকে অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেন প্রেমিকার বাড়ির লোক৷ প্রেমিকার সঙ্গে থাকা রাজেশকে আটক করে পুলিশ৷ তখন জানা যায় যে, প্রেমিকাকে বিয়ে করে ফেলেছে রাজেশ৷ পালানোর পরদিনই একে অপরের গলায় মালা পরিয়ে বিয়ে করেছে তারা৷ এরপরই মুখোমুখি হয় রাজেশের স্ত্রী ও তার প্রেমিকা৷ থানার মধ্যেই দুই মহিলার মধ্যে শুরু হয় তুমুল ঝগড়া৷ প্রেমিকার সঙ্গেও যেহেতু বিয়ে করেছে রাজেশ, তাই বাস্তবে রাজেশের দুজন স্ত্রী৷ ফলে দু’জনের দায়িত্বই পালন করতে হবে৷ এবার আসরে নামে পুলিশ৷ সপ্তাহে দুই স্ত্রীর মধ্যে দিন ভাগাভাগি করে দেন তারা৷ এতে রাজি হয় সব পক্ষই৷ এই মর্মে এক লিখিত চুক্তিতে সই করে সকলে৷


    তবে কিছুদিনের মধ্যেই প্রেমিকা শ্লিলতাহানীর অভিযোগ করে থানায় এফআইআর দায়ের করে৷ এরপর আদালতে মামলা দায়ের হয় এবং গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয় রাজেশ মাহাতোর বিরুদ্ধে৷ রাজেশ পলাতক৷ তাকে খুঁজছে ঝাড়খণ্ড পুলিশ৷

    Published by:Pooja Basu
    First published:

    লেটেস্ট খবর