দেশজুড়ে PNB কেলেঙ্কারি নিয়ে তোলপাড়, বদনাম থেকে বাঁচতে রাতারাতি বদলে গেল গয়নার দোকানের নাম

দেশজুড়ে PNB কেলেঙ্কারি নিয়ে তোলপাড়, বদনাম থেকে বাঁচতে রাতারাতি বদলে গেল গয়নার দোকানের নাম
File Photo

মঙ্গলবার ছিল গীতাঞ্জলি। বুধবার সকালে হয়ে গেল পেরিওয়াল জেমস। শিলিগুড়িতেও কি নীরব-মেহুল এফেক্ট?

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: মঙ্গলবার ছিল গীতাঞ্জলি। বুধবার সকালে হয়ে গেল পেরিওয়াল জেমস। শিলিগুড়িতেও কি নীরব-মেহুল এফেক্ট? দেশজুড়ে পিএনবি কেলেঙ্কারি তোলপাড় ফেলতেই, রাতারাতি বদলে গেল গয়নার দোকানের নাম। ফ্র্যাঞ্চাইজি থাকলেও, বদনাম থেকে বাঁচতেই নাম পরিবর্তন বলে দাবি ব্যবসায়ীর। মেহুল চোকসির সংস্থার খপ্পরে পড়েন শিলিগুড়ির বিজেপি নেতাও।

ছিল রুমাল। হয়ে গেল বিড়াল। গত বৃহস্পতিবার সামনে আসে হীরে ব্যবসায়ী নীরব মোদি ও পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কের কেলেঙ্কারির খবর।

পাঁচ দিন পর মঙ্গলবার রাতেও শিলিগুড়ির বিধান রোডে এই গয়নার দোকানের নাম ছিল গীতাঞ্জলি জুয়েলস। হোর্ডিং-এ জ্বলজ্বল করত গীতাঞ্জলির অধীনে থাকা নামী ব্রান্ডগুলির নামও। আর পাঁচ দিনের মতো বুধবারও খোলে দোকান। কিন্তু রাতারাতি বদলে যায় দোকানের নাম। গীতাঞ্জলি হয়ে যায় পেরিওয়াল। জুয়েলস বদলে হয় জেমস। আট বছর ধরে গীতাঞ্জলির ফ্র্যাঞ্চাইজি রয়েছেন নরেশ পেরিওয়াল। কিছু সমস্যা থাকলেও বাতিল হয়নি চুক্তি। তারপরও কেন নাম বদল?

২০১৬ সালে গীতাঞ্জলির ডিস্ট্রিবিউটরের জন্য আবেদন করেছিলেন, শিলিগুড়ির বিজেপি নেতা-ব্যবসায়ী প্রবীন আগরওয়াল। উত্তরবঙ্গ ও সিকিমে ব্যবসার জন্য অফার লেটার পেয়ে, সংস্থাকে পাঁচ লক্ষ টাকা দেন। কিন্তু এরপর আর তাঁর সঙ্গে কোনও যোগাযোগ রাখেনি গীতাঞ্জলি। মামা-ভাগ্নের কেলেঙ্কারি সামনে আসার আগেই, অবশ্য গীতাঞ্জলির বিরুদ্ধে মামলা করেন প্রবীন আগরওয়াল।

শুধু নরেশ পেরিওয়াল নন, অনেক ফ্র্যাঞ্চাইজিই তাঁদের দোকানের নাম বদলানোর ভাবনাচিন্তা শুরু করে দিয়েছেন। কিন্তু রাতারাতি দোকানের নাম বদলে যাওয়ায় ট্রেড লাইসেন্স অনুযায়ী মালিকানা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন শিলিগুড়ির মেয়র অশোক ভট্টাচার্য।

First published: 11:07:08 AM Feb 22, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर