কাশ্মীরে ৩৭০ বাতিল, ভারতের অভ্যন্তরীন বিষয়, নাক গলাবে না রাষ্ট্রসংঘ, জানিয়ে দিল নিরাপত্তা পরিষদ

কাশ্মীর সমস্যা সমাধানে দ্বিপাক্ষিক আলোচনাই পথ। নাক গলাবে না রাষ্ট্রসংঘ। জানিয়ে দিল নিরাপত্তা পরিষদ।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 17, 2019 10:03 AM IST
কাশ্মীরে ৩৭০ বাতিল, ভারতের অভ্যন্তরীন বিষয়, নাক গলাবে না রাষ্ট্রসংঘ, জানিয়ে দিল নিরাপত্তা পরিষদ
সন্ত্রাস বন্ধ হলেই পাকিস্তানের সঙ্গে কথা, নিরাপত্তা পরিষদে বার্তা নয়াদিল্লির
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 17, 2019 10:03 AM IST

#নয়াদিল্লি: শেষমুহূর্তে ট্রাম্পকে ফোন করেও ব্যর্থ ইমরান। মুখ পুড়ল পাকিস্তানের। ভূস্বর্গে ৩৭০ বাতিল, ভারতের অভ্যন্তরীন বিষয়। কাশ্মীর সমস্যা সমাধানে দ্বিপাক্ষিক আলোচনাই পথ। নাক গলাবে না রাষ্ট্রসংঘ। জানিয়ে দিল নিরাপত্তা পরিষদ। সন্ত্রাস বন্ধ করলে তবেই কথা। বার্তা রাষ্ট্রসংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধির।

ভারতের কাছে জোড়া সাফল্য। পাকিস্তানের কাছে ঠিক উলটো। অর্থাৎ জোড়া ধাক্কা। কাশ্মীর সমস্যাকে আন্তর্জাতিক ইস্যু করার কৌশল নিয়ে চরম অস্বস্তিতে পাকিস্তান।

৪৮ বছর পর কাশ্মীর নিয়ে আলোচনা হল রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে। শুক্রবার সন্ধেয় প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে বৈঠক চলে। মূলত দুটি আবেদন নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের দ্বারস্থ হয়েছিল চিন ও পাকিস্তান। আবেদন ১: কাশ্মীর সমস্যায় হস্তক্ষেপ করুক রাষ্ট্রসংঘ। আবেদন ২: ৩৭০ ধারা বাতিলকে এক্তিয়ার বহির্ভূত ঘোষণা করুক।

এই আবেদন খতিয়ে দেখেই মতামত দেন নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী ও অস্থায়ী সদস্য দেশের প্রতিনিধিরা।

রাষ্ট্রসংঘের অবস্থান - কাশ্মীর দ্বিপাক্ষিক সমস্যা। সিমলা চুক্তি মেনে দুই দেশ আলোচনা করে সমস্যা মেটাক। ৩৭০ ধারা বাতিল নিয়ে মতামত দেয়নি নিরাপত্তা পরিষদ।

Loading...

কূটনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার ভারতের , কার্যত সেটাই মেনে নিয়েছে নিরাপত্তা পরিষদ।

বৈঠকের আগেই কাশ্মীর নিয়ে ভারতের পাশে দাঁড়িয়েছিল রাশিয়া ও ফ্রান্স। ১৫টি অস্থায়ী দেশের বড় অংশও ভারতকেই সমর্থন করেছেন বলে খবর। নিরাপত্তা পরিষদে ভারতের মত তুলে ধরা গিয়েছে বলেই সমর্থন এসেছে। দাবি করেন রাষ্ট্রসংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধিও।

কাশ্মীর নিয়ে কী নতুন করে দ্বিপাক্ষিক আলোচনার পথে হাঁটবে ভারত-পাকিস্তান? এনিয়ে পুরনো অবস্থানেই অনড় কেন্দ্র।

নিরাপত্তা পরিষদে কাশ্মীর বৈঠকের আগে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান। দুজনের মধ্যে প্রায় ১২ মিনিট কথা হয় বলে দাবি পাক সংবাদমাধ্যমের। তারপরেও মুখরক্ষা হল না।

First published: 10:03:28 AM Aug 17, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर