• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • শেষ 'কড়ভে প্রবচন', চিরনিদ্রায় জৈন মুনি তরুণ সাগর

শেষ 'কড়ভে প্রবচন', চিরনিদ্রায় জৈন মুনি তরুণ সাগর

জৈন মুনি তরুণ সাগর -- ছবিটি সংগৃহীত

জৈন মুনি তরুণ সাগর -- ছবিটি সংগৃহীত

২০ দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন জৈনি মুনি সাগর৷ শারীরিক অবস্থার বেশ খানিক উন্নতি হওয়ায় তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়৷ ভক্তরা জানিয়েছেন, কয়েক দিন ধরেই ওষুধ খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছিলেন তিনি৷ শনিবার ভোরে সব শেষ হয়ে যায়৷ জানা গিয়েছে, জৈনি মুনির শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে উত্তরপ্রদেশের মুরাদনগরে তরুণসাগরমে৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: চিরনিদ্রায় গেলেন জৈন মুনি তরুণ সাগর৷ বয়স হয়েছিল ৫১ বছর৷ দীর্ঘ দিন ধরেই জনডিস-সহ একাধিক রোগে ভুগছিলেন তিনি৷ শনিবার রাতে শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়৷ ভোর ৩টে নাগাদ দিল্লির কৃষ্ণনগর এলাকায় রাধাপুরী জৈনি মন্দিরে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন জৈন ধর্মের গুরু তরুণ সাগর৷

    ২০ দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন জৈনি মুনি সাগর৷ শারীরিক অবস্থার বেশ খানিক উন্নতি হওয়ায় তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়৷ ভক্তরা জানিয়েছেন, কয়েক দিন ধরেই ওষুধ খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছিলেন তিনি৷ শনিবার ভোরে সব শেষ হয়ে যায়৷ জানা গিয়েছে, জৈনি মুনির শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে উত্তরপ্রদেশের মুরাদনগরে তরুণসাগরমে৷

    ১৯৬৭ সালের ২৬ জুন জন্মগ্রহণ করেন তিনি৷ ছোট থেকেই জৈন ধর্মে দীক্ষিত হন তিনি৷ তাঁর কড়ভে প্রবচন বা কড়া প্রবচন বহু মানুষের বেঁচে থাকার রসদ ছিল৷ জীবনের বাস্তব দিকটিকে স্বীকার করে বেঁচে থাকার আনন্দ নেওয়ার উপদেশ দিয়েছেন বরাবর৷ একটি সাক্ষাত্‍‌কারে তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল, আপনি হাতে ওই ঝালড়টি রাখেন কেন? বলেছিলেন, জৈনি ধর্মে কোনও জীব হত্যা পাপ৷ তাই কোনও পোকামাকড় এলে এই ঝালড়টি দিয়ে উড়িয়ে দেন তিনি৷

    দুই সন্তানের বেশি সন্তান নেওয়ার বিরোধিতা করে সরকারের কাছে নীতি প্রনয়ণের আর্জি জানিয়েছিলেন৷ তাঁর মত ছিল, দুইয়ের বেশি সন্তান ধারণ করলে সরকারের উচিত কড়া ব্যবস্থা নেওয়া৷ এই নীতি সব জাতি ও ধর্মের মানুষের জন্যই লাগু হোক চেয়েছিলেন৷

    First published: