রেইকি শেষ! আরএসএস দফতর ওড়াতে পারে IS-জঙ্গিরা? চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট

ছবিটি সংগৃহীত

জানা গিয়েছে, আরএসএস-এর দিল্লি হেডকোয়ার্টাসের পাশাপাশি দীনদয়াল রিসার্চ ইনস্টিটিউটও আইএস জঙ্গিদের নিশানায় ছিল৷ দীনদয়াল রিসার্চ ইনস্টিটিউটে হামলার রেইকি করা হয়ে গিয়েছে৷ তবে হামলার দিন এখনও ঠিক করেনি সোহেল৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: জঙ্গি সংগঠনের আইএস-এর হামলার নিশানায় রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘ (আরএসএস)? গোয়েন্দাদের কাছে এল এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য৷ গোয়েন্দাদের কাছে গোপন খবর, আরএসএস-এর দিল্লি হেডকোয়ার্সে হামলা চালানোর ছক কষছিল আইএস জঙ্গি মুফতি সোহেল৷

    জানা গিয়েছে, আরএসএস-এর দিল্লি হেডকোয়ার্টাসের পাশাপাশি দীনদয়াল রিসার্চ ইনস্টিটিউটও আইএস জঙ্গিদের নিশানায় ছিল৷ দীনদয়াল রিসার্চ ইনস্টিটিউটে হামলার রেইকি করা হয়ে গিয়েছে৷ তবে হামলার দিন এখনও ঠিক করেনি সোহেল৷ গোটা হামলার মাস্টার মাইন্ড হিসেবে কাজ করছে জঙ্গি মুফতি সোহেল৷ সঙ্গে রয়েছে আইএস-কে অস্ত্র সরবরাহকারী নঈম নামে আরেক জঙ্গিও৷

    দিল্লি পুলিশের অ্যান্টি-টেরর ইউনিটের ৫টি দল, স্পেশাল সেল, SWAT কম্যান্ডোর একটি টিম ও ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো ও ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি মিলে সম্প্রতি একটি জঙ্গি দমন অভিযানে নামে৷ সেই অভিযানেই মিলেছে আরএসএস দিল্লি সদর দফতর হামলার ছক৷ আইএস নিশানায় আরএসএস হেডকোয়ার্টার্স ছা়ড়াও রয়েছে দিল্লি পুলিশের সদর দফতরও৷

    এনআইএ-র ইন্সস্পেক্টর জেনারেল অলোক মিত্তল জানিয়েছেন, দিল্লিতে আনাস ইউনুস (অ্যামিটি ইউনিভার্সিটি-র সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র) নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ নয়ডা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে ২২ বছরের যুবক জাইদ মালিক ও তার ভাই জুবেইর মালিককে (২০)৷ জুবেইর দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএ ফাইনাল ইয়ারের ছাত্র৷ আনাসের কাছে উদ্ধার হয়েছে বিস্ফোরক তৈরির সরঞ্জামও৷

    First published: