দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বার্ড ফ্লু-র মধ্যে মুরগি ও ডিম খাওয়া কি নিরাপদ?

বার্ড ফ্লু-র মধ্যে মুরগি ও ডিম খাওয়া কি নিরাপদ?
বার্ড ফ্লু-র মধ্যে মুরগি ও ডিম খাওয়া কি নিরাপদ?

মুরগি ও ডিম খাওয়ার ক্ষেত্রে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) ও অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স (এআইএমএস) বলছে স্বাস্থ্যকর রান্নার অভ্যাস তৈরি করতে৷ হাঁস-মুরগি বা তার ডিম দুই খুব ভাল ভাবে রান্না করতে হবে৷

  • Share this:

#কলকাতা: দেশ জুড়ে করোনা আতঙ্কের মধ্যেই ফের মাথা চাড়া দিয়েছে বার্ড ফ্লু৷ ইতিমধ্যেই কেরল, রাজস্থান, হিমাচলপ্রদেশ ও মধ্যপ্রদেশের মানুষ সিঁদুরে মেঘ দেখতে শুরু করেছে৷

অন্যদিকে হিমাচল প্রদেশের কিছু পরিযায়ী পাখি ও কেরলে মুরগি এবং হাঁসের মধ্যে বার্ড ফ্লু ছড়িয়েছে। হরিয়ানার পাঁচকুল্লা অঞ্চল, জম্মু ও কাশ্মীরেও এই ভাইরাসের চিহ্ন মেলায় সতর্কতা জারি করা হয়েছে।অ্যাভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা রীতিমতো আতঙ্ক ধরাচ্ছে৷

এখন অনেকের মনেই প্রশ্ন জেগেছে বার্ড ফ্লু-র মধ্যে হাঁস-মুরগি ও তার ডিম খাওয়া কি নিরাপদ? হাঁস -মুরগি ও ডিম সবই পোলট্রিজাত৷ সেক্ষেত্রে এই পাখি বা ডিম হাত দিয়ে নাড়াচাড়া করার ক্ষেত্রে একটা ঝুঁকি থেকেই যায়৷ কিন্তু এখনও পর্যন্ত পাখিদের থেকে ভাইরাস মানুষের শরীরে সংক্রমিত হতে পারে বলে এখনই কিছু জানাচ্ছেন না বিশেষজ্ঞরা।

তবে মুরগি ও ডিম খাওয়ার ক্ষেত্রে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) ও অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স (এআইএমএস) বলছে স্বাস্থ্যকর রান্নার অভ্যাস তৈরি করতে৷ হাঁস-মুরগি বা তার ডিম দুই খুব ভাল ভাবে রান্না করতে হবে৷ এই অবস্থায় ডিমের হলুদ অংশটা কাঁচা বা অর্ধেক রান্না অবস্থায় না খাওয়াই ঠিক হবে৷

৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে রান্না হলে পাখির শরীরে ভাইরাসের থেকে যাওয়ার সম্ভাবনা থেকে যাবেই৷ ফলে অনেকটা সময় নিয়ে রান্না করাই শ্রেয়৷ কারণ ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপর রান্না করলে এইচফাইভএনওয়ান ভাইরাস বাঁচতে পারে না৷ পোলট্রিজাত পাখি হাতে নেওয়ার পর অন্তত ২০ সেকেন্ড গরম জলে হাত ধুয়েই রান্না করার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা৷

Published by: Subhapam Saha
First published: January 7, 2021, 8:23 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर