corona virus btn
corona virus btn
Loading

#IndiaStrikesBack: ১৯৭১ যুদ্ধের পরবর্তী পাকিস্তানের জঙ্গিঘাঁটিতে সর্ববৃহৎ ও বিধ্বংসী হামলা ভারতীয় সেনার

#IndiaStrikesBack: ১৯৭১ যুদ্ধের পরবর্তী পাকিস্তানের জঙ্গিঘাঁটিতে সর্ববৃহৎ ও বিধ্বংসী হামলা ভারতীয় সেনার
১২টি মিরাজ-২০০০ যুদ্ধবিমান নিয়ে হামলা হয় ৷ ১০০০ কেজি বোমা ফেলা হয় জঙ্গিঘাঁটিতে ৷ বিমান হানায় খতম অন্তত ২০০-৩০০ জঙ্গি ৷
  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দিনটা ছিল ১৪ ফেব্রুয়ারি ৷ ভারতের সিআরপিএফের কনভয়ে ভয়াবহ জঙ্গি হামলার জেরে শহিদ হয়েছিলেন প্রায় ৪২ জওয়ান ৷ কান্নায় ভেঙে পড়েছিল গোটা দেশ ৷ পাকিস্তানকে যোগ্য জবাব দেওয়ার দাবিতে গর্জে উঠেছিল দেশবাসী ৷ অবশেষে, পুলওয়ামা হামলার ১২ দিনের মাথায় হামলা চালাল ভারতীয় সেনা ৷ পাকিস্তানের মাটিতে ভেঙে গুড়িয়ে দিল একাধিক জঙ্গি ঘাঁটি ৷ ২০০ থেকে ৩০০ জন জঙ্গিকে খতম করল ভারতীয় বায়ুসেনা ৷ যা নি:সন্দেহে প্রথম সার্জিকাল স্ট্রাইকের থেকেও ছিল ভয়ঙ্কর ৷

যে কারণে এই হামলা সবথেকে বড় এবং ভয়ঙ্কর--

১) ২০১৬ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর ৷ উরি হামলার ১১দিন পর এলওসি পেরিয়ে হামলা চালিয়ে একাধিক জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস করে বদলা নিয়েছিল ভারত ৷ এলওসি-র খুব কাছে কুপওয়ারা এবং পুঞ্চে ভারতীয় সেনার স্পেশাল ফোর্স হামলা চালায় ৷

তবে, মঙ্গলবারের হামলা ছিল প্রথম সার্জিকাল স্ট্রাইকের থেকেও ভয়ঙ্কর ৷ পুলওয়ামা হামলার বদলা নিল ভারত ৷ সীমান্ত থেকে প্রায় ৮০ কিলোমিটার ভিতরে ঢুকে হামলা চালায় ভারতীয় সেনা ৷ ১৯৭১ সালের যুদ্ধের পর এই প্রথম নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে পাকিস্তানের এয়ারস্পেসে এহেন ভয়ঙ্কর হামলা চালাল ভারতীয় সেনাবাহিনী ৷ মুজাফ্ফরবাদ সেক্টর দিয়ে ঢুকে বেশ কিছুটা ভিতরে গিয়ে হামলা চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা ৷ মোট তিনটি জায়গায় হামলা চালিয়েছে ভারত ৷ ১২টি মিরাজ বিমান হামলা চালিএয়েছে ৷ গুঁড়িয়ে দিয়েছে বেশ কয়েকটি জঙ্গি শিবির ৷ বালাকোটে জইশের সবচেয়ে বড় জঙ্গি ঘাঁটি ধূলিসাৎ হয়ে গিয়েছে ভারতের আক্রমণে ৷

কার্গিল যুদ্ধের সময় অটল বিহারী বাজপেয়ী বায়ুসেনাকে নিয়ন্ত্রণ রেখা পেরোনোর অনুমতি দেয়নি ৷ ১৯৭১-র ভারত-পাক যুদ্ধের পর এই প্রথম পাকিস্তানের মাটিতে এহেন ভয়ঙ্কর হামলা চালাল ভারত ৷

২) সার্জিকাল স্ট্রাইক ২-তে যে অস্ত্রশস্ত্র ব্যবহার করা হয় ৷ তা প্রথম সার্জিকাল স্ট্রাইকের থেকেও ছিল শক্তিশালী ৷ লেসারচালিত মিসাইল নিয়ে হামলা চালানো হয় ৷ বিমান হানায় ধ্বংস জইশ,লস্কর,হিজবুলের একাধিক জঙ্গি ঘাঁটি ৷ এছাড়াও যে ১২টি মিরাজ বিমান নিয়ে হামলা চালানো হয় ৷ তা অনেক নীচ দিয়ে যেতে সক্ষম ৷ পাক র‍্যাডার এড়াতেই এই বিমান ব্যবহার করা হয়েছিল ৷ বিভিন্ন ঘাঁটি থেকে পরপর বিমান ওড়ানো হয় ৷

৩) পুলওয়ামার পর প্রত্যাঘাত আসবেই ভারতের তরফে ৷ সেই কারণে প্রস্তুত ছিল পাক প্রতিরক্ষা বাহিনী ৷ দু’দিন আগেই পাকিস্তানের মুখ্য এয়ার স্টাফ মুজাহিদ আনওয়ার খানও সতর্ক করেছিলেন প্রত্যাঘাত নিয়ে ৷ কিন্তু শেষরক্ষে হয়নি ৷ ভারতের হামলার জেরে রীতিমত দিশেহারা অবস্থা পাকিস্তানের ৷

পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা বিভাগ সম্পূর্ণভাবে অ্যালার্ট থাকা স্বত্ত্বেও ভারতীয় সেনার হামলা ৷ যা প্রমাণ করল, যেকোনও মুহূর্তে এবং পরিস্থিতিতে শত্রুদেশের মাটিতে হামলা চালাতে তৈরি পাকিস্তান ৷

First published: February 26, 2019, 12:12 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर