World Environment Day 2021: প্রকৃতি থাকলে মানুষ থাকবে, পরিবেশ রক্ষায় একগুচ্ছ পদক্ষেপ রেলের

২০৩০ সালের আগে ভারতীয় রেল বিশ্বের দীর্ঘতম গ্রিন রেলওয়ে (Green Railway) তৈরি করার লক্ষ্য মাত্রা স্থির করেছে।

২০৩০ সালের আগে ভারতীয় রেল বিশ্বের দীর্ঘতম গ্রিন রেলওয়ে (Green Railway) তৈরি করার লক্ষ্য মাত্রা স্থির করেছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি:

প্রতি বছর আজকের দিনটিতে বিশ্বজুড়ে পালিত হয় বিশ্ব পরিবেশ দিবস (World Environment Day)। তবে এবছর ভারতীয় রেলের নেওয়া কিছু উদ্যোগ নিয়ে যথেষ্ট চর্চা হচ্ছে বিশিষ্টমহলে। ২০৩০ সালের আগে ভারতীয় রেল বিশ্বের দীর্ঘতম গ্রিন রেলওয়ে (Green Railway) তৈরি করার লক্ষ্য মাত্রা স্থির করেছে, এবং যেখানে থাকবে “নিট জিরো কার্বন এমিটার” (Net Zero Carbon Emitter)। কেন্দ্রীয় রেলওয়ে, ২০১৪-২১ সালের মধ্যে মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) ১৮৯৫ কিমি রেলওয়ে ট্র্যাকের বিদ্যুতায়ণের করেছে, যার মধ্যে রয়েছে মধ্যপ্রদেশে ১৪৫ কিমি এবং কর্ণাটকে ১৯৩ কিমি রেলওয়ে ট্র্যাক। এছাড়াও তিনটি সেকশনের মোট ৫৫৫ কিমি ট্র্যাকে এখনও বিদ্যুতায়ণের প্রক্রিয়া চলছে।

বিদ্যুতায়ণ হওয়ার ফলে যেসব সুবিধাগুলি হবে

  • পরিবেশবান্ধব পদ্ধতিতে চলবে পরিবহন ব্যবস্থা।
  • আমদানি করা ডিজেল জ্বালানির ওপর ভরসা কম করতে হবে, যার ফলে মূল্যবান বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় করা যাবে এবং কার্বন ফুটপ্রিন্টস হ্রাস করা যাবে।
  • অপারেটিং খরচা অনেকটা কম হবে।
  • ভারী মালহবনকারী ট্রেন এবং প্যাসেঞ্জার বহনকারী দীর্ঘ ট্রেনগুলিতে ব্যাপক পরিমাণে বিদ্যুতের ব্যবহার লাগে, এই বিদ্যুতায়ণের ফলে যা অনেকখানি কমে যাবে।
  • অ্যাকাউন্ট ট্রাকশন পরিবর্তনের মাধ্যমে সেকশনাল ক্যাপাসিটি বৃদ্ধি করে
  • বৈদ্যুতিক লোকোর অপারেটিং এবং মেইনটেনেন্স খরচা কম করতে সাহায্য করবে

বিদ্যুতায়ণের কাজ ছাড়াও ভারতীয় রেল নিম্নলিখিত এই কাজগুলি করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে:

  • বায়ো টয়লেটের মাধ্যমে পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা।
  • ভারতীয় রেলওয়ে স্টেশনগুলিতে প্লাস্টিক বোতল ক্রাশিং মেশিন থাকবে যার ফলে আবর্জনা সহজে আলাদা করা যাবে।
  • বাস্তুতন্ত্র পুনরুদ্ধার: সোলার শক্তি এবং শক্তি-সঞ্চয়কারী এলইডি
  • জল সংরক্ষণের জন্য অটোমেটিক কোচ ওয়াশিং প্লান্ট (Automatic Coach Washing Plant) প্রতিস্থাপন
  • জল সংরক্ষণের জন্য বৃষ্টির জলকেই সংরক্ষণ করা হবে

প্রতিবছর ৫ জুন, বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালিত হয়। পরিবেশ রক্ষায় সচেতনতা বাড়াতে এবং নতুন পদক্ষেপ গ্রহণে উৎসাহিত করার জন্য জাতিসংঘ এই দিনটিকে নির্দিষ্ট করে দিয়েছে। এই বছর বিশ্ব পরিবেশ দিবসের থিম 'বাস্তুতন্ত্রের পুনরুদ্ধার' (Ecosystem Restoration)। বর্তমান অন্ধকারময় পরিস্থিতিতে অতীতকে ফেরানো সম্ভব নয় ঠিকই। কিন্তু আমরা গাছ লাগাতে পারি, আমাদের চারপাশে শহরকে আরও সবুজ করতে পারি।

First published: