১৯৭১ সালের যুদ্ধে পাকিস্তানকে পর্যুদস্ত করার স্মৃতি নিয়ে উদযাপিত হচ্ছে ভারতীয় নৌসেনা দিবস

১৯৭১ সালের যুদ্ধে পাকিস্তানকে পর্যুদস্ত করার স্মৃতি নিয়ে উদযাপিত হচ্ছে ভারতীয় নৌসেনা দিবস

৪ ডিসেম্বর। প্রতি বছর এই বিশেষ দিনটিতে পালিত হয় ভারতীয় নৌসেনা দিবস

৪ ডিসেম্বর। প্রতি বছর এই বিশেষ দিনটিতে পালিত হয় ভারতীয় নৌসেনা দিবস

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ৪ ডিসেম্বর। প্রতি বছর এই বিশেষ দিনটিতে পালিত হয় ভারতীয় নৌসেনা দিবস। কিন্তু কেন এই দিনটিকে বেছে নেওয়া হয়েছে? নেপথ্যে রয়েছে কোন ইতিহাস?

আসলে ৪ ডিসেম্বর দিনটি ভারতীয় নৌসেনার এক গর্বের মুহূর্তের সাক্ষী। যার ইতিহাস লুকিয়ে রয়েছে আজ থেকে প্রায় পাঁচ দশক আগে। ১৯৭১ সাল। ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ (India Pakistan War) তখন ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। এই পরিস্থিতিতে ৪ ডিসেম্বর ও ৫ ডিসেম্বর মধ্যরাতে করাচি (Karachi) বন্দরে একটি নৌ-হামলা চালিয়েছিল ভারত। সেই অভিযানের নাম ছিল অপারেশন ট্রাইডেন্ট (Operation Trident)। সে দিন ভারতীয় নৌসেনার আক্রমণে পিএনএস খাইবার, পিএনএস ঢাকা-সহ ( PNS Dacca) পাকিস্তানের চারটি জাহাজ ডুবে গিয়েছিল। শত্রু দেশের প্রায় ৫০০ জন সেনার মৃত্যুও হয়েছিল। আর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিজয়পতাকা উড়িয়েছিল ভারত। নৌসেনার এই সাফল্যকে উদযাপন করতেই প্রতি বছর ৪ ডিসেম্বর পালিত হয় ভারতীয় নৌসেনা দিবস। উল্লেখ্য, এই অভিযানে প্রথমবার একটি অ্যান্টিশিপ মিসাইলও ব্যবহার করা হয়েছিল।

বলা বাহুল্য, অপারেশন ট্রাইডেন্টের তিন দিন পর অপারেশন পাইথন (Operation Python) চলেছিল। তবে দু'টি অভিযানেই পাকিস্তানকে কড়া জবাব দিয়েছিলেন ভারতীয় সেনারা।

কী কী হয় এই বিশেষ দিনে?

নৌসেনা দিবসে (Navy Day) সাধারণত একাধিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন দেশের নৌসেনারা। বিভিন্ন ধরনের জনহিতকর কার্যকলাপের মাধ্যমে দেশের নাগরিকদের মধ্যে আরও বেশি করে সচেতনতা বাড়িয়ে তোলা হয়। নানা ইভেন্টের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে উৎসাহিত করার পাশাপাশি দেশপ্রেমে উজ্জীবিত করা হয়। এই বিশেষ দিনটিতে অনেক নৌসেনা আধিকারিককে সম্মানিত করা হয়। তাঁদের বীরত্ব ও সাহসিকতাকে মেডেল দিয়ে সম্মান জানানো হয়।

তবে এ বার পরিস্থিতি ভিন্ন। করোনা-আবহে বদলেছে অনুষ্ঠান আয়োজনের ধরন ও পরিকল্পনা। সামাজিক দূরত্ব ও সংক্রমণের জাঁতাকলে পড়ে আপাতত ভার্চুয়ালি সম্পন্ন হচ্ছে সব কিছু। তবে উদযাপনে কোনও খামতি নেই। রয়েছে একাধিক আকর্ষণীয় ভার্চুয়াল ইভেন্ট। থাকছে আইএনএস বিক্রমাদিত্যের (INS Vikramaditya) ৩৬০ ডিগ্রি ভার্চুয়াল রিয়েলিটি ট্যুর। এ ক্ষেত্রে স্মার্টফোনের মাধ্যমে আইএনএস বিক্রমাদিত্যের একাধিক এলাকার খুঁটিনাটি পরিদর্শন করতে পারবেন সাধারণ মানুষ। আইএনএস বিক্রমাদিত্যের পাশাপাশি নৌসেনার আরও নানা নিদর্শনের ভার্চুয়াল ভ্রমণ চলবে। যুদ্ধজাহাজগুলিকে বিশদে জানতে পারবেন দেশের মানুষ। এ ক্ষেত্রে সমস্ত বিষয়ের বর্ণনা দেবেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নৌসেনা আধিকারিকরা।

এ বারের থিম: ভারতীয় নৌসেনা দেশসেবায় সর্বদা প্রস্তুত । আর সেই বিষয়ের মাথায় রেখে এ বারের নৌ সেনা দিবসের থিম- Indian Navy Combat Ready, Credible & Cohesive।

Published by:Rukmini Mazumder
First published: