বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবর্ষে বড় সম্মান ভারতের, ঘোষণা মোদি সরকারের

বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবর্ষে বড় সম্মান ভারতের, ঘোষণা মোদি সরকারের

শেখ মুজিবুর রহমানকে মরণোত্তর গাঁধি শান্তি পুরস্কার দিচ্ছে ভারত৷

১৯৯৫ সাল থেকে গাঁধি পুরস্কার দিয়ে আসছে ভারত সরকার৷ বিদেশী নাগরকিদেরও এই সম্মান জানানো হয়৷

  • Share this:

    #দিল্লি: আগামী ২৬ এবং ২৭ মার্চ বাংলাদেশ সফরে যাচ্ছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ উদ্দেশ্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবর্ষের অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া৷ তার আগেই শেখ মুজিবুর রহমানকে বড় সম্মান দিয়ে বাংলাদেশের প্রতি ফের একবার বন্ধুত্বের বার্তা দিল মোদি সরকার৷ এ দিনই ভারতের বিদেশমন্ত্রকের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে, ২০২০ সালের গাঁধি শান্তি পুরস্কার দেওয়া হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে৷

    বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষে তাঁকে মরণোত্তর সম্মান জানিয়ে ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ককে আরও সুদৃঢ় করারই চেষ্টা করল কেন্দ্র৷ এর পাশাপাশি ২০১৯ সালের গাঁধি পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে ওমানের প্রয়াত রাজা সুলতান কাবুস বিন সইদ আল সইদকে৷

    ১৯৯৫ সাল থেকে গাঁধি পুরস্কার দিয়ে আসছে ভারত সরকার৷ বিদেশী নাগরকিদেরও এই সম্মান জানানো হয়৷ এই পুরস্কার কমিটির মাথায় রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ এ ছাড়াও কমিটিতে রয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি, লোকসভার বিরোধী দলনেতা প্রমুখ৷ গত ১৯ মার্চ বৈঠকে বসেন কমিটির সদস্যরা৷ সেখানেই সর্বসম্মত ভাবে ২০২০ সালের গাঁধি শান্তি পুরস্কার শেখ মুজিবুর রহমানকে প্রদান করারই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷

    বিদেশমন্ত্রকের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, শেখ মুজিবুর রহমানকে মানবাধিকার রক্ষা এবং স্বাধীনতার পক্ষে অন্যতম শ্রেষ্ঠ ব্যক্তিত্ব বলে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু যে ভারতীয়দের চোখেও নায়কের সম্মান পান, সেকথাও জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী৷ তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথেই দু' দেশের সম্পর্কের ভিত আরও মজবুত হয়েছে৷ বাংলাদেশ যখন মুজিব বর্ষ পালন করছে, তখন ভারত এই সম্মান জানাতে পেরে গর্বিত বোধ করছে বলেও বিদেশমন্ত্রকের বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে৷

    বাংলাদেশের স্বাধীনতায় শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান এবং যেভাবে সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে জন্মানো একটি দেশকে স্থায়িত্ব দিয়ে তিনি যেভাবে ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে তোলেন, তাঁকে স্বীকৃতি দিতেই এই পুরস্কার বলেও বিবৃতিতে জানানো হয়েছে৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:
    0