• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • চিনা-পণ্যে রেগে বহু দেশ! ভেন্টিলেটর-মাস্ক সেই চিন থেকেই কিনছে ভারত

চিনা-পণ্যে রেগে বহু দেশ! ভেন্টিলেটর-মাস্ক সেই চিন থেকেই কিনছে ভারত

রাজ্যগুলিকে লেখা চিঠিতে দাবি করা হয়েছে, ভালভ সহ এন-৯৫ মাস্ক পরে থাকলেও করোনা ভাইরাস বাইরে বেরিয়ে আসতে পারে৷ ফলে এই ধরনের মাস্কের ব্যবহার বন্ধ করার জন্য চিঠিতে পরামর্শ দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের ডিজি৷ PHOTO- FILE

রাজ্যগুলিকে লেখা চিঠিতে দাবি করা হয়েছে, ভালভ সহ এন-৯৫ মাস্ক পরে থাকলেও করোনা ভাইরাস বাইরে বেরিয়ে আসতে পারে৷ ফলে এই ধরনের মাস্কের ব্যবহার বন্ধ করার জন্য চিঠিতে পরামর্শ দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের ডিজি৷ PHOTO- FILE

একাধিক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ১৩০ কোটির দেশে করোনা ভাইরাস আরও বাড়লে স্বাস্থ্য পরিষেবার করুণ অবস্থায় তা ভয়াবহ আকার নেবে৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ভাইরাসটি ছড়িয়েছে চিন থেকে৷ করোনা রুখতে অনেক দেশই চিনের পণ্য বর্জন করছে৷ চিন থেকে আমদানি বন্ধ করছে৷ চিনের পণ্যের গুণগত মান নিয়েও ইউরোপের কিছু দেশে অভিযোগ উঠছে৷ কিন্তু ভারত নিরুপায়৷ এ দেশে করোনা আক্রান্তের চিকিত্‍সার জন্য পর্যাপ্ত ভেন্টিলেটর নেই৷ মাস্ক জুটছে না খোদ ডাক্তার, চিকিত্‍সাকর্মীদেরই৷ অতঃপর? সেই চিন থেকেই ভেন্টিলেট ও মাস্ক আমদানি করতে হচ্ছে ভারতকে৷

    ভারতে ইতিমধ্যেই করোনায় ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ একাধিক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ১৩০ কোটির দেশে করোনা ভাইরাস আরও বাড়লে স্বাস্থ্য পরিষেবার করুণ অবস্থায় তা ভয়াবহ আকার নেবে৷ কেন্দ্রীয় সরকারের বক্তব্য, চিকিত্‍সা ব্যবস্থা আরও উন্নতির চেষ্টা চলছে৷ মাস্ক ও ডাক্তারদের পোশাক বাড়ানো হচ্ছে৷ দেশের সংস্থাগুলিও তৈরি করছে৷ চিন ও দক্ষিণ কোরিয়া থেকেও আমদানি করা হচ্ছে৷

    কিন্তু চিনের মাস্ক নিয়ে বিশ্বজুড়ে অভিযোগের পাহাড়৷ ইতিমধ্যেই চিন থেকে আমদানি করা কয়েক হাজার মাস্ক চিনেই ফেরত পাঠিয়ে দিয়েছে নেদারল্যান্ডস৷ অভিযোগ জানিয়েছে স্পেনও৷ চিনর বিদেশমন্ত্রক এক বিবৃতিতে বলেছে, চিনে তৈরি পণ্যের গুণগত মান নিয়ে বেশ কিছু দেশ প্রশ্ন তুলেছে৷ স্বীকার করছি, কিছু পণ্যে ত্রুটি রয়েছে৷ চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র হুয়া চুনিংয়ের কথায়, 'চিনের বেশির ভাগ সংস্থাই দিবারাত্র কাজ করছে অন্য দেশের জীবন বাঁচানোর জন্য৷ আমাদের সুরক্ষা ব্যবস্থা স্বচ্ছ৷ যদি কোনও সমস্যা তৈরি হয়ে থাকে, তা হলে দেখতে হবে কোন ক্ষেত্রে তা ঘটছে৷ কথা বলতে হবে৷'

    Published by:Arindam Gupta
    First published: