মোদি সরকারের ক্ষুধা-অস্বস্তি, বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে ১০২ নম্বরে ভারত !

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 16, 2019 05:02 PM IST
মোদি সরকারের ক্ষুধা-অস্বস্তি, বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে ১০২ নম্বরে ভারত !
Representational Image
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 16, 2019 05:02 PM IST

#নয়াদিল্লি: মোদি সরকারের অস্বস্তি আরও বাড়ল। বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে ১১৭টি দেশের মধ্যে ভারতের স্থান ১০২ নম্বরে। এই পরিসংখ্যানকে অস্ত্র করে সরাসরি নরেন্দ্র মোদিকে নিশানা করছে বিরোধীরা।

১১৭টি দেশকে নিয়ে ক্ষুধা সূচক ৷ তার মধ্যে ১০২ নম্বরে নেমে গেল ভারত ৷

অপুষ্টি, শিশুমৃত্যু, পাঁচ বছরের চেয়ে কমবয়সি শিশুর উচ্চতার তুলনায় কম ওজনের মতো বেশ কয়েকটি মাপকাঠিতে বিভিন্ন দেশকে বিচার করে তৈরি করা হয় বিশ্ব ক্ষুধা সূচক। এই সূচকে পাকিস্তান, বাংলাদেশ, নেপালের থেকেও পিছিয়ে ভারত ৷

ভারত ১০২ নম্বরে

পাকিস্তান ৯৪ নম্বরে

Loading...

বাংলাদেশ ৮৮ নম্বরে

নেপাল ৭৩ নম্বরে

পরিসংখ্যান বলছে, ২০১৪ সালে বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে ৭৬টি দেশের মধ্যে ভারতের স্থান ছিল ৫৫ নম্বরে ৷

২০১৭ সালে ১১৯টি দেশের মধ্যে ১০০ নম্বরে

২০১৮ সালে ১১৯টি দেশের মধ্যে ভারত ছিল ১০৩ নম্বরে

এর এবার, ২০১৯ সালে ১১৭টি দেশের মধ্যে ভারতের স্থান ১০২ নম্বরে

২০১৯ সালের বিশ্ব ক্ষুধা সূচক অনুযায়ী,৫ বছরের কমবয়সি শিশুর উচ্চতার তুলনায় কম ওজন অর্থাৎ চাইল্ড ওয়েস্টিংয়ের সমস্যা ভারতে অত্যন্ত উদ্বেগের। ভারতে চাইল্ড ওয়েস্টিংয়ের হার ২০.৮ শতাংশ। যা তালিকায় থাকা অন্য সব দেশের থেকে বেশি।

বিশ্ব ক্ষুধা সূচকের এই রিপোর্টকেই হাতিয়ার করছে বিরোধীরা। তাদের নিশানায় সরাসরি নরেন্দ্র মোদি। কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বলের ট্যুইট, মোদিজি, রাজনীতির কথা কম ভেবে শিশুদের কথা বেশি ভাবুন। শিশুরাই আমাদের ভবিষ্যৎ। ৬ থেকে ২৩ মাসের ৯৩ শতাংশ শিশুই ঠিক মতো খেতে পায় না।

বিরোধীরা কটাক্ষের সুরে বলছে, দেশের অর্থনীতি যে খাদের কিনারায়, তা এখনও মানতে রাজি নন মোদি সরকারের মন্ত্রীরা। এবার এই বিশ্ব ক্ষুধা সূচককেও কি তাঁরা অস্বীকার করবেন ?

First published: 04:54:35 PM Oct 16, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर