Home /News /national /
ভোটের মতো, আজ থেকে টাকা বদলালেই আঙুলে কালি লাগানো হবে

ভোটের মতো, আজ থেকে টাকা বদলালেই আঙুলে কালি লাগানো হবে

ভোটের আদলে ব্যাঙ্কেও আঙুলে কালি ৷ একই ব্যক্তি বারবার ব্যাঙ্কে যাচ্ছেন ৷ একই ব্যক্তি বারবার লাইনে দাঁড়াচ্ছেন ৷ এজন্য বহু গ্রাহক সুবিধা পাচ্ছেন না ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ৬ দিন পর হুঁশ ফিরল কেন্দ্রীয় সরকারের। কালো কারবারিদের আটকাতে, নোট বদলে এবার গ্রাহকদের আঙুলে লাগানো হবে কালি। জারি নয়া নিয়ম। প্রাথমিক ভাবে বড় শহরগুলিতে শুরু হয়েছে এই প্রক্রিয়া। পরে তা চালু হবে দেশে। কালো কারবারিদের রুখতে জনধন প্রকল্পের অ্যাকাউন্টেও শুরু হয়েছে নজরদারি। কালো টাকা রুখতে নোট বাতিলের ঐতিহাসিক পদক্ষেপ। কিন্তু, নিয়মের ফাঁক গলে ঘন ঘন নোট বদলে ফেলছিল কালো কারবারিরা। গোড়ায় গলদ ধরতে পেরে সোমবার রাতে বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী ও সচিবরা। ৬ দিন পর হুঁশ ফিরতেই ফের জারি হল নয়া নিয়ম।

    টাকার বিপুল চাহিদার সামনে খানিকটা চাপে কেন্দ্রীয় সরকার। টাকা বদল সহ একাধিক ক্ষেত্রে নয়া দাওয়াই ঘোষণা কেন্দ্রের। ভোটের মতো, আজ থেকে টাকা বদলালেই আঙুলে কালি লাগানো হবে। প্রাথমিক ভাবে এই নিয়ম দেশের বড় শহরগুলিতে চালু হবে। পরে তার প্রয়োগ হবে দেশ জুড়ে। নোট বদলের ক্ষেত্রে দুর্নীতি ঠেকাতেই এই উদ্যোগ বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থসচিব শক্তিকান্ত দাস। তবে কতদিনে এই কালির ব্যবহার বন্ধ হবে তা বলা হয়নি। জন ধন যোজনা সহ বিভিন্ন অ্যাকাউন্টে বড় অঙ্কের লেনদেনের ক্ষেত্রেও ইডি ও আয়কর বিভাগ নজর রাখছে বলে জানিয়েছেন তিনি। বড় টাকার অলঙ্কার কেনার ওপরেও নজর রাখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। ধর্মস্থানগুলিতে প্রণামী হিসেবে দেওয়া টাকাও দ্রুত ব্যাঙ্কে জমা দেওয়ার আবেদন জানানো হয়েছ।

    মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় অর্থসচিব  শক্তিকান্ত দাস জানান, ‘ভোটের আদলে ব্যাঙ্কেও আঙুলে কালি ৷ একই ব্যক্তি বারবার ব্যাঙ্কে যাচ্ছেন ৷ একই ব্যক্তি বারবার লাইনে দাঁড়াচ্ছেন ৷ এজন্য বহু গ্রাহক সুবিধা পাচ্ছেন না ৷ এজন্য ব্যাঙ্কেও কালির ব্যবহার করা হবে ৷ বড় শহরগুলোকে আজ থেকেই পরিষেবা চালু ৷ যাতে একই ব্যক্তি বারবার টাকা জমা দিতে না পারেন ৷ অথবা একই ব্যক্তি বারবার টাকা তুলতে না পারেন ৷’

    তিনি আরও বলেছেন, ‘জনধন অ্যাকাউন্টে দুর্নীতি হচ্ছে ৷ কালো টাকা সাদা করা হচ্ছে ৷ এব্যাপারে আমরা সজাগ দৃষ্টি রাখছি ৷ কালো টাকা ব্যবহারে কাজে লাগানো হচ্ছে ৷ কাজে লাগানো হচ্ছে জনধন অ্যাকাউন্টকে ৷ ব্যাঙ্কে কালো টাকা রাখা যাবে না ৷ এজন্য আমরা বিশেষ প্রযুক্তির ব্যবহার করছি ৷ ব্যাঙ্কে যতটা সম্ভব খুচরো টাকা পাঠানো হচ্ছে ৷’

    নুন নিয়ে গুজব ছড়িয়ে নুনের দাম বাড়ানো হচ্ছে ৷ সবকিছু নিয়েই নজর রাখছে কেন্দ্রীয় সরকার ৷ অত্যাবশ্যকীয় পণ্য নিয়ে কালোবাজারি রুখতে কমিটি গঠন করা হয়েছে ৷

    ‘দেশে নোটের কোনও ঘাটতি নেই ৷ ব্যাঙ্কে যথেষ্ট খুচরো মজুত রয়েছে ৷ ATM-এ যথেষ্ট টাকা পাঠানো হচ্ছে ৷ অযথা আথঙ্কিত হবেন না’, বললেন শক্তিকান্ত দাস ৷

    First published:

    Tags: 500 And 1000 Rupees notes banned, Bengali News, Black money, Currency Banned, Demonetisation, ETV News Bangla, Indelible Ink, Prevent Multiple Withdrawals at Banks

    পরবর্তী খবর