Home /News /national /
Tripura TMC: ত্রিপুরায় অন্য দলকে দুর্বল করতে নয়, প্রধান বিকল্প হিসাবেই কাজ করছে, তৃণমূল দাবি রাজীব-সুস্মিতার 

Tripura TMC: ত্রিপুরায় অন্য দলকে দুর্বল করতে নয়, প্রধান বিকল্প হিসাবেই কাজ করছে, তৃণমূল দাবি রাজীব-সুস্মিতার 

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

Tripura TMC: বিজেপি সরকারের অপশাসন সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে, তৃণমূল কংগ্রেস নেতারা বলেছেন যে তাদের দল বিজেপির বিরুদ্ধে একমাত্র বিশ্বাসযোগ্য বিকল্প হিসাবে আবির্ভূত হয়েছে

  • Share this:

#আগরতলা:  তৃণমূল কংগ্রেস বলেছে যে আসন্ন ত্রিপুরা উপনির্বাচন যদি অবাধ এবং সুষ্ঠভাবে পরিচালিত হয় তবে বিজেপি চারটি আসনেই হারাবে। বিজেপি সরকারের অপশাসন সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে, তৃণমূল কংগ্রেস নেতারা বলেছেন যে তাদের দল বিজেপির বিরুদ্ধে একমাত্র বিশ্বাসযোগ্য বিকল্প হিসাবে আবির্ভূত হয়েছে, কারণ সিপিআই(এম) এবং কংগ্রেস একটি বিশ্বাসযোগ্য বিরোধী হিসাবে কাজ করতে ব্যর্থ হয়েছে। দলের নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, আমাদের সঙ্গে অর্জুন নমশূদ্র আছেন যিনি সুরমা বিধানসভা আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। তিনি একজন তরুণ নেতা। তিনি মাটির সন্তান। একজন শিক্ষিত যুব নেতা যিনি ত্রিপুরার মানুষের জন্য লড়াই করতে চান।

আমাদের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নারীর ক্ষমতায়নে দৃঢ় বিশ্বাসী। এই কারণেই আমরা আগরতলা বিধানসভা কেন্দ্রে পান্না দেব অর্থাৎ একজন যোগ্যকে প্রার্থী করেছি। তিনি একজন নিবেদিতপ্রাণ তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী ছিলেন যিনি যে কোনও ভয়ে কোনও সময়ে দল ছাড়েননি। পান্না দেব সর্বদা সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন এবং মানুষের জন্য কাজ করেছেন। তিনি বর্তমানে ত্রিপুরা প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেসের মহিলা শাখার নেত্রী। টাউন বড়দোয়ালি আসনের জন্য, আমরা আরেকজন মহিলা প্রার্থীকে প্রার্থী করেছি যিনি মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্য। সংহিতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আত্মীয়দের উপর হামলা করা হয়েছিল এবং তাঁর বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল কিন্তু তিনি ত্রিপুরার জনগণের জন্য উন্নয়ন নিশ্চিত করার জন্য তার রাজনৈতিক লড়াই বন্ধ করেননি।

আরও পড়ুন-আপ মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনের আর্থিক তছরুপের মামলায় উদ্ধার নগদ ২ কোটি, সোনার কয়েন!

একই ভাবে, ডঃ মৃণাল কান্তি দেবনাথ, একজন শিক্ষিত যুবনেতা, ত্রিপুরার উন্নত ভবিষ্যতের জন্য আশাবাদী৷ সেই স্বপ্ন পূরণে যুবরাজনগর থেকে নির্বাচনে লড়বেন তিনি। আমরা নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকা থেকে প্রার্থী দিয়েছি যাতে নেতারা জনগণের সমস্যা বুঝতে পারেন। রাজীব বন্দোপাধ্যায় জানিয়েছেন, অনেকে বলছেন যে তৃণমূল কংগ্রেস বিকল্প নয়। শুধুমাত্র অন্য দলগুলিকে দুর্বল করতে চায়৷ কিন্তু তৃণমূলই একমাত্র দল যারা বিজেপিকে পরাজিত করতে সক্ষম এবং আমরা তা দেখেছি ২০২১ সালের বাংলা নির্বাচনে। কংগ্রেস এবং বামফ্রন্ট ২০২১ সালে বাংলায় বিজেপিকে শক্তিশালী করেছে।

আরও পড়ুন - Fake Doctor: পরণে সাদা অ্যাপ্রন, রোগীর পরিবার দিচ্ছে পরামর্শ, কলকাতা মেডিক্যাল থেকে গ্রেফতার ভুয়ো চিকিৎসক!

অন্য দিকে সুস্মিতা দেব জানিয়েছেন, ত্রিপুরার জনগণের কাছে আমার আন্তরিক অনুরোধ গণতন্ত্রে জনগণের ভোটের শক্তি ব্যবহার করার জন্য। আমাদের যোগ্য প্রার্থী আছে এবং তাঁরা খুবই সাহসী। পুরনিগম নির্বাচনের সময়, প্রার্থীদের নিজেদের ভোট দিতে বা বাড়ি থেকে বার হতে দেওয়া হয়নি। আমাদের প্রার্থীরা বিজেপির বাইক বাহিনী বা প্রশাসনের আক্রমণ-সহ যে কোনও পরিস্থিতিতে লড়াই করতে পারে। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবকে স্বাগত জানাতে এই “বাইক বাহিনী”-এর সদস্যরা বিমানবন্দরে গিয়েছিলেন। আমাদের এই "বাইক বাহিনী" সংস্কৃতির অবসান ঘটাতে হবে এবং উপনির্বাচন এই ক্ষেত্রে একটি ভাল সুযোগ।

আবীর ঘোষাল
Published by:Uddalak B
First published:

Tags: TMC, Tripura

পরবর্তী খবর