'সুখা' গুজরাতের রাস্তায় ছুটল মদের ফোয়ারা! জন্মদিনে তলোয়ার দিয়ে কেক কাটলেন বিজেপি নেতা

গুজরাতে প্রকাশ্য দিবালোকে রাস্তার মধ্যে গাড়ি দাঁড় করিয়ে খোলা হল একের পর এক মদের বোতল। সেই মদে ভিজলেন উপস্থিত সকলে।

গুজরাতে প্রকাশ্য দিবালোকে রাস্তার মধ্যে গাড়ি দাঁড় করিয়ে খোলা হল একের পর এক মদের বোতল। সেই মদে ভিজলেন উপস্থিত সকলে।

  • Share this:

    #গুজরাত: খাতায় কলমে গুজরাত ‘ড্রাই স্টেট’। মদ তৈরি, মজুত, বিক্রি বা মদ্যপান একেবারে নিষিদ্ধ। সেই গুজরাতেই প্রকাশ্য দিবালোকে রাস্তার মধ্যে গাড়ি দাঁড় করিয়ে  খোলা হল একের পর এক মদের বোতল। সেই মদে ভিজলেন উপস্থিত সকলে।   উপলক্ষ্য বিজেপি নেতার জন্মদিন।

    গুজরাতের মহিসাগর জেলার বিজেপির আহ্বায়ক কনওয়াল পটেলের বিরুদ্ধে বিস্তর  অভিযোগ উঠেছে। জন্মদিনে তাঁর কেক কাটার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানে দেখা গিয়েছে, রাস্তায় গাড়ির বনেটে রাখা হয়েছে বেশ কয়েকটি কয়েকটি দামি কেক। তলোয়ার হাতে সেই কেক কাটছেন তিনি। মুহূর্তটাকে উদযাপন করার জন্য খোলা হচ্ছে একের পর এক বিয়ারের বোতল। সেই বিয়ারেই প্রিয় নেতাকে ভিজিয়ে দিচ্ছেন একদল যুবক।

    ভিডিওতে কনওয়ালের পাশে জেলা বিজেপির সভাপতি যোগেন্দ্র মেহরাকেও দেখা গিয়েছে। রাজ্যে মদ নিষিদ্ধ হওয়ার পরেও কী ভাবে এই ধরনের ঘটনা ঘটল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ঘটনার সূত্র ধরেই আসরে নেমে পড়েছে কংগ্রেস।

    শুধু তাই নয়, করোনার আবহে যেখানে জমায়েত নিষিদ্ধ। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার পাশাপাশি মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক, সেখানে ভিডিওতে কারও মুখেই মাস্ক দেখা যায়নি। এমনকী সামাজিক দূরত্বের লেশ মাত্র ছিল না। ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই তা নিয়ে তোলপাড় হয়ে গিয়েছে রাজ্য-রাজনীতি। গুজরাত বিজেপি এবং মহিসাগরের পুলিশকে ট্যাগ করে ভিডিওটি রি-ট্যুইট করেছেন অনেকে। গোটা ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যদিও দুই নেতার কেউ গ্রেফতার হয়েছেন কিনা এখনও জানা যায়নি।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: