দ্রুত শুরু হবে ভ্যাকসিনেশন, সোমবার প্রতিষেধক বণ্টন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর

দ্রুত শুরু হবে ভ্যাকসিনেশন, সোমবার প্রতিষেধক বণ্টন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর
আতঙ্কের দিন শেষ। ১৩ জানুয়ারি থেকেই দেশজুড়ে শুরু হচ্ছে জরুরি ভিত্তিতে করোনা টিকাকরণ।

আতঙ্কের দিন শেষ। ১৩ জানুয়ারি থেকেই দেশজুড়ে শুরু হচ্ছে জরুরি ভিত্তিতে করোনা টিকাকরণ।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি:  অবশেষে স্বস্তি ৷ করোনা অতিমারিকে বাগ মানাতে হাজির ভ্যাকসিন ৷ কিভাবে পাবেন সবাই সেই ভ্যাকসিন ৷ সেই নিয়ে সোমবার সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷

    এর আগে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন জানিয়েছিলেন, ‘কয়েকদিনের মধ্যেই ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু হবে ৷  প্রথম দফায় স্বাস্থ্যকর্মী ও করোনা যোদ্ধাদের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।’ ভ্যাকসিন সংরক্ষণ ও বণ্টনের ক্ষেত্রে কেন্দ্র ও রাজ্যের সমন্বয় গুরুত্বপূর্ণ ৷ দেশের ১৩৩ কোটি মানুষকে প্রতিষেক দেওয়া মুখের কথা নয় ৷ তাই সুষ্ঠ পরিকল্পনা খুব গুরুত্বপূর্ণ ৷ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আশা দেশের ২৭ কোটি মানুষ জুলাইয়ের মধ্যেই প্রতিষেধক পেয়ে যাবেন ৷

    আতঙ্কের দিন শেষ। ১৩ জানুয়ারি থেকেই দেশজুড়ে শুরু হচ্ছে জরুরি ভিত্তিতে করোনা টিকাকরণ।  প্রথম পর্যায়ে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন পাবেন চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীরা।     ইতিমধ্যেই মোবাইলে পৌঁছে গেছে এসএমএস। হাতে, হাতে পৌঁছে যাচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সই করা চিঠি।  ১৩ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে বিনামূল্যে ভ্যাকসিনেশন। অপেক্ষায় বাংলার ফ্রন্টলাইন করোনা যোদ্ধারা।  বিনামূল্যে ভ্যাকসিন নেওয়ার এসএমএস পেয়েছেন নার্স, সাফাইকর্মীরা,  হাসপাতালের গ্রুপ ডি কর্মীরাও। খুশি সকলেই। অনেকটা নিশ্চিন্ত। তবু নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তা যাচ্ছে না।


    Published by:Elina Datta
    First published: