দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

পাহাড়ি রাস্তায় দুর্দান্ত ইউ টার্ন, চালকের দক্ষতায় বাঁচল বহু প্রাণ, ভাইরাল ভিডিও

পাহাড়ি রাস্তায় দুর্দান্ত ইউ টার্ন, চালকের দক্ষতায় বাঁচল বহু প্রাণ, ভাইরাল ভিডিও

বাসটি একটু এদিক-ওদিক হলেই বহু মানুষের আহত ও মৃত্যু হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা ছিল।

  • Share this:

#হিমাচল: খানিকটা সুপারহিরোর মতোই স্টান্ট করলেন বাস্তবের এই সাধারণ মানুষটি । না, সুপার হিরো বললে ভুল হয় না। কারণ, একার দক্ষতায় ছোট একটি পাহাড়ি রাস্তায় বাসটিকে ইউ টার্নে ঘোরালেন। আর বাঁচিয়ে দিলেন বহু প্রাণ। একটু ভুল হলেই একটা মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে যাওয়ার প্রবল সম্ভাবনা ছিল। ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে হিমাচল রোড ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের সেই বাসের ইউ টার্ন নেওয়ার দৃশ্য। চালকের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সকলে।

২৪ সেকেন্ডের এই ভিডিওটি দেখলে হৃদস্পন্দন বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। পাহাড়ের সংকীর্ণ রাস্তা। বাসটি প্রায় নিয়ন্ত্রণের বাইরে। কারণ সামনের দিকে পাহাড় আর পিছোতে গিয়ে একটু এদিক-ওদিক হলেই গাড়ি গড়িয়ে পড়বে একেবারে নিচে। কিন্তু কেরামতি দেখালেন চালক। একদম মাপ-জোক করে গাড়িটিকে বিপদ কাটিয়ে বের করে আনলেন তিনি। যথাসাধ্য চেষ্টা করেছেন বাসের কনডাক্টর হেল্পার ও যাত্রীরাও। দু'-একবার সামনে-পিছনে করতে করতে ধীরে ধীরে লাইনে ফিরে আসে বাসটি। আর ফের চলতে শুরু করে।

ফুটেজটি ভালো করে দেখলে ও শুনলে উপলব্ধি করা যাবে সামগ্রিক পরিস্থিতির ভয়াবহতা। পরিস্থিতি এতটাই কঠিন ছিল যে, যাঁরা ভিডিওটি রেকর্ডিং করছিলেন, তাঁরাও নিজেদের ঠিক রাখতে পারেননি। ভিডিওটির ব্যাকগ্রাউন্ডে উত্তেজনার বশে কথা বলা-সহ হাততালির শব্দও পাওয়া যাচ্ছে।

Incredible Himachal নামে একটি Facebook পেজে শেয়ার করা হয়েছে এই ঘটনার ভিডিওটি। ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতে শুরু করেছে এই ভিডিও। তবে, চালকের প্রশংসায় ভরে উঠেছে কমেন্ট বক্স। চালকের দক্ষতা ও সাহসিকতার প্রশংসা করেছেন সকলে। কমেন্ট করতে গিয়ে একজন লিখেছেন, চালকের স্কিল শেখার মতো। এই রকম একটি পরিস্থিতিতে মাথা ঠাণ্ডা রেখে ও ধৈর্য ধরে গাড়িটিকে বের করে আনা বিরাট ব্যাপার। অন্য চালকদের এখান থেকে শেখা উচিৎ। এক ফেসবুক ইউজারের বক্তব্য, HRTC ড্রাইভারের থেকে বাকি শহরের গাড়ি চালকদের শেখা উচিৎ।

বেশিরভাগ লোকজনই ড্রাইভারের বুদ্ধি ও প্রশিক্ষণের প্রশংসা করেছেন। তাঁদের কমেন্টে গাড়িটির চালকই আসল হিরো। বাসটি একটু এদিক-ওদিক হলেই বহু মানুষের আহত ও মৃত্যু হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা ছিল। এই রকম এক ভয়ানক পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার পাশাপাশি এতজনের প্রাণ বাঁচানোর জন্য প্রশংসার দাবি রাখে চালকের কাজ!

Published by: Piya Banerjee
First published: December 18, 2020, 7:36 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर